দামুড়হুদার চন্দ্রবাসে ওরশ শরীফের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দার

 

 

আধ্যাত্মিক নারী তাপসী নবীছন নেছার প্রথম ফাত দিবস পালিত

বখতিয়ার হোসেন বকুল: দামুড়হুদার চন্দ্রবাস গ্রামের আধ্যাত্মিক নারী তাপসী নবীছন নেছার প্রথম ওফাত দিবস (মৃত্যুবার্ষিকী) পালিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে চন্দ্রবাসস্থ নবনির্মিত নবীছন নেছা মাজার শরিফে ফিতে কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন।

চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রশাসক দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষযক সম্পাদক মাসুদুল হক বিশ্বাস লিটু, জেলা সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আ.লীগ নেতা আজিজুল হক হযরত, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক আজিজ, দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান, নতিপোতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হামিদুল্লাহ বিশ্বাস, আতিয়ার রহমান হাবু, আমজাদ হোসেন, ইদ্রিস আলী, আব্দুল হালিম, আব্দুস সালাম, আব্দুল মালেক, পিন্টু, আলী আহম্মদ, লাল্টু প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনের পরপরই শুরু হয় ওফাত দিবসের কার্যক্রম।

এ বিষয়ে মাজারের প্রধান খাদেম চন্দ্রবাস গ্রামের সুলতান আলীর ছেলে মনিরুল ইসলাম বলেন, মা তাপসী নবীছন নেছা দীর্ঘ প্রায় ২৫ বছর থেকে আধ্যাত্মিক জগতে পা রাখেন। ২২ শ্রাবণ ৪ আগস্ট২০১৩ গত বছরের এই দিনে তিনি দেহত্যাগ করে পরলোকে গমন করেন। তিনি মৃত্যুর ৪ দিন আগে তার ভক্ত আশেকান ও সাধু গুরুদের ডেকে বলেন, আমি ৪ দিন পর দেহত্যাগ করে পরলোকে গমন করবো। তিনি ওই দিনই মারা যান। বর্তমানে তার প্রায় ১ হাজার ভক্ত আশেকান ও খাদেম আছে। আজ তার প্রথম ওফাত দিবস। ভক্ত আশেকান ও সাধু গুরুরা দুপুরের পর থেকে জিকির আজগার, মিলাদ মাহফিল, ধর্মীয় ও আধ্যাত্মিক গানের মধ্যদিয়ে দিবসটি পালনকরবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.