দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা মিশনপাড়ার দু কৃষক অপহরণ : পুলিশের সাড়াশি অভিযান : মাঠ থেকে দু কৃষককে উদ্ধার

দর্শনা অফিস/কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি: দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গাসহ আশপাশ এলাকায় একের পর এক ঘটছে চাঁদাবাজি, বোমা বিস্ফোরণ ও ডাকাতির ঘটনা। পুলিশি অভিযান অব্যাহত রাখা হলেও কোনোভাবেই ঠেকানো যাচ্ছেনা ওই চক্রকে। প্রায় প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও ঘটছে ছিনতাই, চাঁদাবাজি, ডাকাতি ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা। এবার চাঁদার দাবিতে মাঠ থেকে দু কৃষককে অপহরণ করলো চাঁদাবাজচক্রের সদস্যরা। পুলিশ মাঠ ঘিরে রাতভর অভিযান চালিয়ে অবশেষে দুজনকে উদ্ধার করেছে। গ্রেফতার করতে পারেনি চাঁদাবাজচক্রের কোনো সদস্যকে।

জানা গেছে, দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা মিশনপাড়া সংলগ্ন বেলে মাঠে কৃষকরা ব্যাপকভাবে করেছে সবজি চাষ। প্রায় প্রতিরাতেই ওই মাঠ থেকে সবজি চুরির ঘটনা ঘটছে। মিশনপাড়ার নেপাল মণ্ডলের ছেলে শহিদ ও একইপাড়ার আলেক মণ্ডলের ছেলে ডাকু মণ্ডল নিজেদের জমির ফুলকপি চুরি ঠেকাতে গত শনিবার রাত ১১টার দিকে মাঠে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে কার্পাসডাঙ্গা-মুজিবনগর মহাসড়কের ফকির খালী ব্রিজের নিকট পৌঁছুলে ১০/১২ জনের সশস্ত্র চাঁদাবাজচক্র তাদের অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে বেলে মাঠের গাছের সাথে বেঁধে রাখে। এক পর্যায়ে চাঁদাবাজরা চাঁদার টাকা আনতে শহিদকে বাড়িতে পাঠায়। এ কথা শহিদের কাছ থেকে জানাজানি হলেও খবর পায় কার্পাসডাঙ্গা ফাঁড়ি পুলিশ। পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই ওয়ালিয়ার রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দ্রুত পৌঁছান বেলে মাঠে। পুলিশ ও গ্রামবাসী মাঠের চতুরদিক ঘিরে ফেলে। শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। পুলিশ ও গ্রামবাসীর উপস্থিতি টের পেয়ে কৃষক ডাকুকে বেঁধে রেখেই পালিয়ে যায় চাঁদাবাজরা। এক পর্যায়ে মাঠে গাছের সাথে বেঁধে রাখা অবস্থায় পুলিশ ডাকু মণ্ডলকে উদ্ধার করেছে। তবে এ ঘটনায় পুলিশ চাঁদাবাজচক্রের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *