দামুড়হুদার আরামডাঙ্গায় বজ্রপাতে এক কৃষক নিহত

ঘটনার ৪ ঘণ্টার মাথায় মাঠ থেকে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার
কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের আরামডাঙ্গা গ্রাম সংলগ্ন মাঠে বজ্রপাতে কৃষক সৈয়দ ম-ল (৫৩) নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার দুপুর আনুমানিক ১টার দিকে হাল্কা বৃষ্টির সময় বজ্রপাতে ঝলসে তিনি প্রাণ হারান। ঘটনার পর প্রায় ৪ ঘণ্টার মাথায় কয়েকজন কৃষক লাশ দেখে স্থানীয়দের জানান। যে মানুষটা মাঠে কৃষি কাজ করার জন্য বাড়ি থেকে বের হন দুপুরের কিছুক্ষণ আগে, তার লাশ হয়ে ফেরা দেখে নিকটজনদের আহাজারিতে এলাকার পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে।
স্থানীয়রা বলেছেন, দামুড়হুদা কার্পাসডাঙ্গার আরামডাঙ্গার হাজি মরহুম আহম্মদ ম-লের ছোট ছেলে সৈয়দ ম-ল ছিলেন একজন বড় চাষি। নিজের জমিতে পরিশ্রম করেই ফলাতেন ফসল। পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, গতকাল বুধবার দুপুরের আগে মাঠে যান চাষের কাজে। দুপুরে বৃষ্টির মাঝে গ্রামের সাধারণ মানুষ বজ্রপাতের ঝলসানো আলো দেখে চমকে ওঠলেও তেমন কেউই ভাবেননি ওই বজ্রপাতে গ্রামেরই কেউ মারা গেছেন। বিকেল আনুমানিক ৫টার দিকে কয়েকজন লাশ দেখে বাড়ি খবর দেন। ঝলসে যাওয়া কৃষক সৈয়দ ম-লের মৃতদেহ উদ্ধার করে নিজের বাড়িতে নেয়া হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দু ছেলে ও এক মেয়েসহ বহুগুণগ্রাহী রেখে গেছেন। গতকালই রাত ১০টার দিকে আরামডাঙ্গা কবরস্থানে নামাজে জানাজা শেষে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.