দাউদ ইব্রাহিম পরিচয়ে মোবাইলফোনে গণহারে চাঁদাদাবি : চাঁদাবাজ গাজীকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ

 

সদরুল নিপুল: নিজেকে দাউদ ইব্রাহিম পরিচয় দিয়ে মোবাইলফোনে ভয়ভীতি দেখিয়ে একের পর এক চাঁদাদাবি করা ব্যক্তি চুয়াডাঙ্গা মাছের দাইড় গ্রামে চাঁদাবাজ গাজীর উদ্দিন ওরফে গাজীকে জনগণ গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করেছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের মোমিনপুর ইউনিয়নের মাছের দাইড় গ্রামের আব্দুল মান্নানের সেজো ছেলে গাজীর উদ্দিন ওরফে গাজী (৪০) একমাস আগে জেল থেকে মুক্ত হয়ে  চুয়াডাঙ্গার নীলমণিগঞ্জ, সরিষাডাঙ্গা, আলমডাঙ্গার ঘোলদাড়িসহ পাশ্ববর্তী এলাকায় নিজেকে মোজাম বাহিনীর দাউদ ইব্রাহিম পরিচয় দিয়ে মোবাইলফোনে একের পর এক চাঁদাদাবি করে মানুষকে অতিষ্ট করে তুলছিলো। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কৌশলে সরিষডাঙ্গা, কবিখালী, আমিরপুরসহ পাশ্ববর্তী এলাকার মানুষ চুয়াডাঙ্গা সাতগাড়ীর মোড়ে একটি চায়ের দোকান থেকে চাঁদাবাজ গাজীকে ধরে সরিষাডাঙ্গা গ্রামে নিয়ে আসে। উত্তেজিত জনগণ দাউদ ইব্রাহিম পরিচয়দাতা চাঁদাবাজ গাজীকে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে মোমিনপুর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দার দ্রুত ঘটনাস্থল ছুটে গিয়ে উত্তেজিত জনগণকে শান্ত করেন। খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এসআই সেকেন্দার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল দুপুরে জনগণের মাঝ থেকে চাঁদাবাজ গাজীকে গ্রেফতার করেন। এলাকাবাসী জানায়, গাজী একই মোবাইল নম্বর থেকে একের পর এক চাঁদাদাবি করে আসছিলো। সে নিজেকে দাউদ ইব্রাহিম পরিচয় দিতো। গাজী প্রথমে বিভিন্ন এলাকায় শ্যালোমেশিনের হেড চুরি করতো। চুরি-ডাকাতির এক পর্যায়ে সে অন্ধকার জগতে পা বাড়ায়। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *