দর্শনা ও জীবননগরে বিজিবির পৃথক মাদকবিরোধী অভিযান ফেনসিডিলসহ তিন মাদকব্যবসায়ী আটক

দর্শনা অফিস: দর্শনা বিজিবি সদস্যরা হল্টস্টেশন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়েছেন। এ অভিযানে ফেনসিডিলসহ ঈশ্বরচন্দ্রপুরের অভিযুক্ত মাদকবহনকারী আসাদুলকে আটক করেছে। তার বিরুদ্ধে থানায় দায়ের করা হয়েছে মামলা। গতকাল সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে দর্শনা পৌর শহরের ঈশ্বরচন্দ্রপুর বড় মসজিদপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে সাইদুল ইসলাম বস্তাভর্তি ফেনসিডিল নিয়ে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা গোয়ালন্দগামী ট্রেনের অপেক্ষায় ছিলো। এ সংবাদের ভিত্তিতে দর্শনা বিজিবি ক্যাম্পের হাবিলদার শওকত আলী সঙ্গীয় সদস্যদের নিয়ে মাদকবিরোধী অভিযান চালান হল্টস্টেশন এলাকায়। বস্তাভর্তি ফেনসিডিলসহ আটক করা হয় সাইদুলকে। বিজিবি সদস্যরা সাইদুলের কাছে থাকা বস্তায় ১৪২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছেন। আটককৃত সাইদুল বলেছে, এ ফেনসিডিল নিয়ে সে ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিলো। ঢাকার গাবতলী এলাকার হাজেরা নামের এক মহিলার জোন হাজিরায় সে ফেনসিডিল বহন করে বলে দাবি করেছে। এ ঘটনায় হাবিলদার শওকত আলী বাদী হয়ে গতকালই দামুড়হুদা থানায় সাইদুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, গতকাল সোমবার জীবননগর সীমান্ত ফাঁড়ি বিজিবি সদস্যরা উপজেলার পিয়ারাতলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ভারতীয় ফেনসিডিলসহ দু চোরাচালানীকে আটক করেছেন। আটককৃত মাদকদ্রব্যের মূল্য প্রায় ৪ লাখ টাকা বলে বিজিবি জানিয়েছে।

বিজিবিসূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল দুপুর ১টার দিকে জীবননগর সীমান্ত ফাঁড়ি বিজিবি কমান্ডার হাবিলদার নাজমুল হক সঙ্গীয় জওয়ান নিয়ে উপজেলার পিয়ারাতলা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় উপজেলার মেদিনীপুর থেকে যাওয়া চুয়াডাঙ্গাগামী একটি করিমন তল্লাশি করে তেলের ড্রামের ভেতর থেকে ৪৭৭ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করে। করিমনসহ জীবননগর মেদিনীপুর গ্রামের মৃত বাটা আশরাফের ছেলে আরেফিন ইসলাম (২০) ও খলিলুর রহমানের ছেলে মহর আলীকে (১৩) আটক করে বিজিবি। আটককৃতদের গতকালই মামলাসহ জীবননগর থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে বলে বিজিবিসূত্র জানিয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *