দর্শনায় ক্ষ্যাপা কুকুরের কামড়ে মহিলা ও শিশুসহ জখম ৩

দর্শনা অফিস: পুলিশ চোর, ডাকাত, সন্ত্রাসী ও খুনিকে পিটিয়ে শায়েস্তা করতে পারলেও হার মেনে গেলো ক্ষ্যাপা কুকুরের কাছে। অসংখ্য সশস্ত্র পুলিশের মধ্যেই এক অফিসারকে কামড়ে ঘায়েল করলো ক্ষ্যাপা কুকুর। শুধু পুলিশকে কামড়ে খান্ত হয়নি কুকুরটি। মহিলা ও শিশুসহ ৩টি ছাগল এবং একটি গরুকে কামড়েছে। ১৮ দলের অবরোধের জন্য গত বুধবার সকালে দর্শনা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নিরাপত্তা জন্য দায়িত্ব বণ্টন করছিলেন দামুড়হুদা থানার এসআই আফজাল হোসেন। ঠিক সে সময় আফজাল হোসেনের ওপর হামলা চালায় একটি ক্ষ্যাপা কুকুর। কুকুরটি দৌঁড়ে এসেই দারোগা আফজালের পায়ে কামড়ে ধরে। কুকুরের কামড়ে ঘায়েল দারোগাকে উদ্ধার করে নেয়া হয় চিকিৎসার জন্য। স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ বেওয়ারিশ ক্ষ্যাপা কুকুরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে। এর আগেও ওই কুকুরটি দর্শনা বাসস্ট্যান্ডপাড়ার আক্তারের স্ত্রী নাজিরা (২৫), ছয় বছর বয়সী এক শিশুছেলে, বাসস্ট্যান্ডপাড়ার রফিকের ২টি ও রহমানের ১টি ছাগল এবং ইসমাইলের একটি গরুকে কামড়ে দেয়। এ ব্যাপারে দর্শনা পৌর কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেছে সচেতনমহল। অভিযোগ করে বলা হয়েছে, অজ্ঞাত কারণে দীর্ঘদিন ধরে দর্শনা পৌর কর্তৃপক্ষ বেওয়ারিশ কুকুর নিধন অভিযান বন্ধ রেখেছে। ফলে দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে বেওয়ারিশ ও ক্ষ্যাপা কুকুরের সংখ্যা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *