তৃণমূলের সাথে সরাসরি যোগাযোগ খালেদার

স্টাফ রিপোর্টার: আঠারো দলীয় জোটের চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনে দলের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা, বিশেষ করে রাজধানীকেন্দ্রিক নেতাদের ফিল্ড পারফর্ম্যান্সে সন্তুষ্ট নন বিরোধীদলীয় নেত্রী খালেদা জিয়া। এ পরিস্থিতিতে দলের তৃণমূল এবং মাঠ পর্যায়ের নেতাদের সাথে নিজেই যোগাযোগ করছেন তিনি।

ইতোমধ্যে তার হাতে সারাদেশের জেলা, উপজেলা এবং রাজধানীর থানা ও ওয়ার্ডভিত্তিক নেতাদের তালিকা ও ফোন নম্বর তুলে দিয়েছে দলের দফতর বিভাগ। ওই তালিকা ধরে ধরে তিনি এখন সরাসরি টেলিফোনে মাঠের তৃণমূল নেতাদের সাথে কথা বলছেন, তাদের অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছেন।

সরকারকে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে বাধ্য করতে সম্প্রতি বিরোধীদল দফায় দফায় অবরোধ ডাকলেও রাজধানীতে মাঠে নেই বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা। এর প্রভাব পড়ে রাজধানীর অবরোধ চিত্রেও। এরই ধারাবাহিকতায় সাম্প্রতিক অবরোধ কর্মসূচিতে রাজধানীর তেমন কোথাও উল্লেখযোগ্য কোনো তৎপরতা দেখাতে পারেনি বিএনপি এবং এর অঙ্গ সংগঠনগুলো।

কেন্দ্রীয় নেতাদের আন্দোলনে না পেয়ে মনোবল হারাচ্ছেন মাঠ পর্যায়ের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। শীর্ষ নেতাদের গা-ছাড়া মনোভাব বুঝতে পেরে ঝুঁকি নিতে চাইছেন না তারা। আন্দোলন-সংগ্রামে রাজধানীর এ পরিস্থিতি নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন উদ্বিগ্ন বলে জানিয়েছে তার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র।

ঢাকার বাইরে সারাদেশে আন্দোলনে তৃণমূল নেতাকর্মীরা মাঠে থাকলেও ওইসব এলাকায় দায়িত্বপ্রাপ্ত দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের অনেকেই মাঠে থাকছেন না। নেতাকর্মীরা জেল-জরিমানা এবং হতাহতের শিকার হলেও তাদের কাছ থেকে কোনো সহায়তা পাচ্ছেন না। এমনকি অনেকের ফোনই পাওয়া যায় বন্ধ। পরিস্থিতি উপলব্ধি করে এর আগেও কয়েকবার দলের নিষ্ক্রিয় কেন্দ্রীয় নেতাদের সতর্ক করে আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখার তাগিদ দেন খালেদা জিয়া। কিন্তু তারপরও পরিস্থিতির খুব একটা উন্নতি হয়নি। এমনকি সর্বশেষ অবরোধ কর্মসূচিতে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবসহ সিনিয়র অনেক নেতাই আত্মগোপনে ছিলেন। পাশাপাশি তাদের মোবাইলফোন বন্ধ থাকারও অভিযোগ করেন সাধারণ নেতাকর্মীরা। এ পরিস্থিতিতে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মনোবল বাড়াতে নিজেই সরাসরি মাঠ পর্যায়ের নেতাদের সাথে কথা বলছেন খালেদা জিয়া।

খালেদা জিয়ার কাছ থেকে ফোন পেয়ে ইতোমধ্যে রাজধানীর বেশ কয়েকজন সাবেক ওয়ার্ড কমিশনারসহ থানা পর্যায়ের নেতারা খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করেছেন। সরাসরি খালেদা জিয়ার কাছ থেকে আন্দোলনের নির্দেশনা গ্রহণ করেছেন তারা।

Leave a comment

Your email address will not be published.