তারেক রহমানকে দেশে ফেরত আনতে যুক্তরাজ্যে চিঠি

স্টাফ রিপোর্টার: লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। তাকে দেশে ফেরত পাঠাতে ব্রিটিশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফিলিপ হ্যামন্ডের কাছে একটি চিঠি লিখেছেন। চিঠিটি ইতোমধ্যে লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের হাতে পৌঁছেছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে চিঠিটি হ্যামন্ডের কাছে পৌঁছে দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোকে ওই চিঠির অনুলিপি দিতে বলা হয়েছে বলে কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে। সূত্র জানায়, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ রয়েছে সেগুলো আইনগতভাবে মোকাবেলার জন্য তাকে দেশে পাঠাতে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠিতে আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া সরকার মনে করছে, তারেক রহমানের উসকানিমূলক বিবৃতি ও নির্দেশনা দেশের স্থিতিশীলতার পরিপন্থি। এ কারণেও তাকে দেশে ফেরত পাঠানো জরুরি। তারেক রহমানের নির্দেশনার বিষয়টি ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে বিদেশি দূতদের কাছে তুলে ধরা হয়েছে। উল্লেখ্য, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমান চিকিত্সার জন্য ২০০৮ সালে দেশ ছাড়েন। এরপর থেকে তিনি যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন। সম্প্রতি তারেক রহমানের বক্তৃতা-বিবৃতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট। একই সাথে আদেশের ৩০ দিনের মধ্যে বিদেশে তারেক রহমানের লন্ডনে অবস্থানের বর্তমান অবস্থা জানাতে পররাষ্ট্রসচিবকে নির্দেশ দেয়া হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *