ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব ছড়াচ্ছে চুয়াডঙ্গাপৌর এলাকার চতুর্দিক : পরিস্থিতির আরো অবনতি

 

দিনেও শনাক্ত হয়নি রোগের উৎস : পৌরসরবরাহকৃত পানির বিশুদ্ধতা নিয়েই জোর প্রশ্ন

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার নতুন নতুন মহল্লায় ডায়রিয়া সংক্রমিত হচ্ছে। গতকাল মঙ্গলবার মুক্তিপাড়া, পোস্ট অফিসপাড়া, ওয়াপদাপাড়ার বেশ কয়েকটি পরিবারের একাধিক সদস্য ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। চুয়াডাঙ্গায় ভয়াবহ ডায়রিয়ার প্রকোপের খবর পেয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম গতকাল কয়েক দফা জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপির সাথে যোগাযোগ করে চিকিৎসার অগ্রগতিও সার্বিকপরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ খবর নিয়েছেন।

আক্রান্তপরিবারেরপ্রায়সকলসদস্যইডায়রিয়ারপ্রকোপেঅবর্ণনীয়দুর্ভোগেরসময়পারকরছেন।অনেকেচুয়াডাঙ্গাপৌরএলাকারআত্মীয়বাড়িবেড়াতেএসেডায়রিয়াআক্রান্তহয়েএখনহাসপাতালে।গতকালওচুয়াডাঙ্গাসদরহাসপাতালেনতুনআক্রান্তপ্রায়আড়াইশডায়রিয়ারোগীভর্তিহয়েছেন।স্থানসংকুলানেরঅভাবেকিছুটাসুস্থহলেইঅনেককেবাড়িপাঠিয়েদেয়াহচ্ছে।কেউকেউহাসপাতালেভর্তিহয়েশারীরিকপরিস্থিতিরকিছুটাউন্নতিহয়েছেদেখেঘিঞ্জিপরিবেশছেড়েবাড়িফিরছেন।তাদেরইকারোকারোহাসপাতালআরবাড়িআসা-যাওয়া করতেহচ্ছেপ্রায়সমানতালে।পকেটেইগুঁজেরাখছেনতারাহাসপাতালেরটিকিট।গতরাত২ টায়শেষখবরপাওয়াপর্যন্তগতকালচুয়াডাঙ্গাসদরহাসপাতালেডায়রিয়াআক্রান্তরোগীভর্তিরসংখ্যাছিলো২৪৬জন। এর মধ্যেচুয়াডাঙ্গা বাগানপাড়ার ৩০, মসজিদপাড়ার ৩০, মাঝেরপাড়ার ২৮, জিনতলাপাড়ার ২৫, আরামপাড়ার ২০, মুক্তিপাড়ার ১২, পোস্টঅফিসপাড়ার ১০ এবং অন্যান্য পাড়ার ৬১ জন ও পৌর এলাকার বাইরে থেকে ৩২ জন ভর্তি হয়েছেন। এদিয়ে৫দিনেভর্তিরোগীরসংখ্যাদাঁড়িয়েছে৮০৪জনে।তবেএকতৃতীয়াংশরোগী ইতোমধ্যেইচিকিৎসানিয়েবাড়িফিরেছেন।ফলেহাসপাতালেরোগীরচাপকিছুটাবাড়লেওহাসপাতালপ্রাঙ্গণেবিজিবিরগাঁড়াতাঁবুপর্যন্তরোগীরভিড়অবশ্যপৌঁছায়নি।অনেকে বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার ডায়রিয়া আক্রান্ত কেউ কেউ বাড়িতেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গায়পানিরমাধ্যমেইযেডায়রিয়াকলেরাছড়িয়েছেতাগতকালমঙ্গলবারপর্যন্তকোনোসংস্থানিশ্চিতনাকরলেওভুক্তভোগীসাধারণমানুষেরকাছেপৌরসরবরাহকৃতপানিরবিশুদ্ধতানিয়েইজোরপ্রশ্ন।যদিওগতপরশুথেকেচুয়াডাঙ্গাপৌরকর্তৃপক্ষপৌরসভাকর্তৃকসরবরাহকৃতপানিপাননাকরারঅনুরোধজানিয়েছে।বিজিবি’রতরফেগতকালওচুয়াডাঙ্গাপৌরএলাকারসবচেয়েবেশিডায়রিয়াআক্রান্তমসজিদপাড়া, বাগানপাড়া, জিনতলাপাড়া, পুরাতনপাড়াসহপার্শ্ববর্তীএলাকায়বিশুদ্ধপানি, খাবারস্যালাইনসহপ্রয়োজনীয়ওষুধবিতরণকরাহয়েছে।মহল্লায়মহল্লায়ক্যাম্পকরেবিজিবিসদস্যরাসংক্রমিতএলাকারসাধারণমানুষেরসকলপ্রকারেরসহযোগিতাকরছেন।পৌরসভারপক্ষেসংশ্লিষ্টএলাকায়খাবারস্যালাইনওবিশুদ্ধপানিসহপানিবিশুদ্ধকরণট্যাবলেটবিতরণকরাহচ্ছেবলেদাবিকরাহলেওগতকালঅনেকেইঅভিযোগতুলেবলেছেন, পৌরসভারতরফথেকেকেকখনকীদিচ্ছেতাতোচোখেইদেখাযাচ্ছেনা।অনেকেইপৌরসরবরাহকৃতপানিফুটিয়েপানেরওসাহসপাচ্ছেননা।পৌরসভারনতুননতুনমহল্লায়ডায়রিয়াছড়িয়েপড়ারকারণেপৌরনাগরিকদেরমধ্যেচরমআতঙ্কবিরাজকরছে।অনেকেইক্ষোভপ্রকাশকরেবলেছেন, ৬দিনেওডায়রিয়াছড়ানোরকারণশনাক্তহলোনা, মানুষস্বস্তিপাবেকীভাবে?

গতপরশুরাতেঢাকাথেকেচুয়াডাঙ্গায়পৌঁছায়সংক্রামকরোগনিয়ন্ত্রণকেন্দ্রেরএকটিপ্রতিনিধিদল।চিকিৎসারঅগ্রগতিপরিদর্শনের পাশাপাশিএটিমসংশ্লিষ্টএলাকারপানি ওরোগীদেরমলসংগ্রহকরেপরীক্ষারজন্যঢাকায়নিয়েছে।ঢাকামহাখালীরমহামারীরোগপ্রতিরোধকেন্দ্রের৮সদস্যেরএকটিটিমগতকালচুয়াডাঙ্গায়এসেপৌঁছেছে।এটিমদুভাবেকাজকরছে।তথ্যসংগ্রহওপ্রতিরোধেসহযোগিতাকরছেবলেসংশ্লিষ্টসূত্রজানিয়েছে।অপরদিকেগণহারেডায়রিয়াআক্রান্তহওয়ারপরপরইসংশ্লিষ্টএলাকারপানিপরীক্ষারজন্যঢাকারপরীক্ষাগারেপাঠায়স্বাস্থ্যবিভাগ।গততিনদিনেসেইপরীক্ষারফলাফলসম্পর্কেজানাযায়নি।বিষয়টিগোপনকরাহচ্ছেবলেজোরগুঞ্জনউঠলেওজেলাস্বাস্থ্যবিভাগেরএকাধিককর্মকর্তাঅবশ্যতাউড়িয়েদিয়েবলেছেন, পানিপরীক্ষাররিপোর্টচুয়াডাঙ্গাস্বাস্থ্যবিভাগগোপনকরবেকেনো? যেহেতুপৌরসরবরাহকৃতপানিপাননাকরারজন্যস্বয়ংপৌরমেয়রসকলকেঅনুরোধকরেছেন,সেহেতুএপানিপানথেকেবিরতথেকেবিশুদ্ধপানিপানকরলেইসুস্থথাকাযাবেবলেওমন্তব্যবেশকয়েকজনচিকিৎসকের।তারাবলেছেন, ডায়রিয়াকলেরারজন্যএখনপর্যন্তপৌরসরবরাহকৃতপানিকেইমূলসন্দেহেরমধ্যেরাখাহয়েছে।

চুয়াডাঙ্গাপোস্টঅফিসপাড়ারকালাশেখেরস্ত্রীপাপিয়া, ছেলেহৃদয়ইশুধুডায়রিয়াআক্রান্তহননি, তারবাড়িতেবেড়াতেএসেডায়রিয়াআক্রান্তহয়েএখনহাসপাতালেপাপিয়ারদুবোনেরদুমেয়ে, ওএকখালু।বাগানপাড়ারআসাদুজ্জামানখুলনায়থাকেন।বাড়িতেথাকেনস্ত্রীআছিয়া, একছেলেওতিনমেয়ে।আসাদুজ্জামানছাড়া৪জনইডায়রিয়াআক্রান্তহয়েহাসপাতালে।কেকাকেসেবাকরবে? এরকমঅসংখ্যপরিবারেনেমেএসেছেভয়াবহবিপর্যয়।দ্রুতপ্রতিরোধেরবদলেচক্রবৃদ্ধিহারেচুয়াডাঙ্গারপৌরএলাকায়ডায়রিয়াছড়িয়েপড়ায়সাধারণমানুষেরমধ্যেঅজানাআতঙ্কইশুধুবিরাজকরছেনা, ক্ষোভওসঞ্চারিতহচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গাসদরহাসপাতালেপর্যাপ্তকলেরাস্যালাইনমজুদআছেবলেদুদিনআগেজানানোহলেওগতপরশুমেহেরপুরথেকেএকহাজারস্যালাইনধারকরতেহয়েছে।খুলনাথেকেবরাদ্দকৃত৮হাজারস্যালাইনগতকালচুয়াডাঙ্গাসিভিলসার্জনেরহাতেএসেপৌঁছেছে।অপরদিকেচুয়াডাঙ্গা-১আসনেরসংসদসদস্যবীরমুক্তিযোদ্ধাজাতীয়সংসদেরহুইপচুয়াডাঙ্গার ডায়রিয়াপরিস্থিতিরসার্বক্ষণিকখোঁজরাখছেন।হাসপাতালকর্তৃপক্ষওঝিনাইদহেরদুটিওচুয়াডাঙ্গাসদরহাসপাতালের৬টি মোট৮টিমেডিকেলটিমগঠনকরেচিকিৎসাপ্রদানঅব্যাহতরেখেছে।গতকালদুপুরেরপরবেশকয়েকবারকয়েকজনডায়রিয়ারোগীরমৃত্যুরগুজবছড়ায়।কারা এবং কেনএগুজবছড়িয়েছেতাঅবশ্যনিশ্চিতকরেজানাযায়নি।যদিওগুজবখুববেশিদূরপৌঁছায়নি।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আসা মেডিকেল টিমের একজন সদস্য অভিযোগ করে বলেন, ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা করতে গিয়ে আমরা অসুস্থ হয়ে পড়ছি। আমাদের থাকা-খাওয়া বা বিশ্রামের ব্যবস্থা নেই। তাছাড়া রোগীদের টয়লেট নিয়মিত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে না। এমনকি বলার পরেও কর্তৃপক্ষ টয়লেটে প্রয়োজনীয় সাবানের ব্যবস্থা করছে না।

গতকাল অনেকেই ব্যক্তিগত ও সাংগঠনিকভাবে রোগীদের মধ্যে বিশুদ্ধ পানি, খাবার স্যালাইন ও সাবান বিতরণ করেছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশ কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা অন্যতম।

Leave a comment

Your email address will not be published.