ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিলীপ কুমার আগরওয়ালার মানহানি মামলা

ইনকিলাব সম্পাদক ও উপদেষ্টার বিরুদ্ধে পরোয়ানা

 

স্টাফ রিপোর্টার: মানহানির অভিযোগে ক্ষতিপূরণ চেয়ে দায়ের করা মামলায় দৈনিক ইনকিলাবের সম্পাদক ও প্রকাশক এএমএম বাহাউদ্দিন এবং উপদেষ্টা মো. আলমগীর হোসেনের বিরদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। গতকাল রোববার ঢাকার মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নুর এ আদেশ দেন।
জানা গেছে, গতকাল রোববার এ মামলায় বিবাদীদের বিরুদ্ধে সমন ফেরতের জন্য দিন ধার্য ছিলো। এদিন মামলার অন্য আসামি পত্রিকাটির পরিচালক (বিপনন) আবদুল কাদের আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। শুনানি শেষে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করে। একইসাথে দু আসামির বিরদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। বাদীর আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেসবাহ জানান, আগামী বছরের ৮ এপ্রিলের মধ্যে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে মতিঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

গত ১০ অক্টোবর জুয়েলারী ব্যবসায়ী ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড লিমিটেড’র ব্যাবস্থাপনা পরিচালক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা ঢাকার আদালতে হাজির হয়ে এ মামলা করেন। ওইদিন সংশ্লিষ্ট আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছিলেন। গত ২ অক্টোবর থেকে দৈনিক ইনকিলাবে ‘ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডের প্রতারণা- ভারতের জয়পুর থেকে আনা অধিকাংশ অলঙ্কারই পালিশ করা।’ শিরোনামে প্রকাশিত হয়। গত ১০ অক্টোবর প্রকাশিত হয়, ‘ঈদকে সামনে রেখে ফের সক্রিয় ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড- নকল ডায়মন্ড এনে পালিশ করে চড়াদামে বিক্রি।’ শিরোনামে। শেষ গত ১২ অক্টোবর প্রকাশিত হয়, নকল ডায়মন্ড বিক্রির ধুম পড়েছে গুলশানে ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডে।’  মামলায় বলা হয়, প্রকাশিত রিপোর্টগুলো মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এ সংবাদ প্রকাশেল ফলে বাদী ও তার প্রতিষ্ঠানের সুনাম, যশ ও খ্যাতি ক্ষুন্ন হয়েছে। প্রথম রিপোর্ট প্রকাশের পর থেকে প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় কমে গেছে ও ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাচ্ছে। ফলে পঞ্চাশ কোটি টাকার ব্যবসায়িক ক্ষতি হয়েছে ও একশত কোটি টাকার মানহানি হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *