ট্রেনের ধাক্কায় বাসের ৪ যাত্রী নিহত

স্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীরকমলাপুর টিটিপাড়া বস্তি এলাকায় রেল ক্রসিঙে গতকাল মঙ্গলবার রাত সোয়া১০টার দিকে চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় বলাকা পরিবহনের একটি বাস চুরমার হয়েগেছে। এতে অন্তত ৪ জন যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো অন্তত ১৫ জন।আশঙ্কা করা হচ্ছে, নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। স্থানীয় লোকজন আহতব্যক্তিদের উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি করেছেন।

এঘটনায়নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে সবার নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তবে আহতদের মধ্যেআলামিন (২৫), সানু (২৬), ডলি (২৫), একেএম ওবাইদুর রহমান (৩২), শাহ আলম (৩৭), ইবাল (৩৮) ও মাহফুজ (২৫) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিত্সাধীনরয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৭ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীও পুলিশসূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-গাজীপুর রুটে চলাচলকারী বলাকা পরিবহনেরএকটি বাস সায়েদাবাদ থেকে গাজীপুরের দিকে যাচ্ছিলো। রাত ১০টা দশের দিকে বাসটিটিটিপাড়া লেভেল ক্রসিং এ উল্টো দিক দিয়ে পার হওয়ার চেষ্টা করে। এসময়নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় বাসটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবংবাসের আন্তত ১৫ জন যাত্রী গুরুতর আহত হন। নিহত তিনজনের মধ্যে নাজু ঢাকা মেডিকেলে মারা যান। এছাড়া দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলে আরও ২ জনের লাশ পড়ে থাকতে দেখাগেছে। তবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

রেলওয়ে পুলিশের ডিআইজিকামরুল আহসান জানান, দুর্ঘটনায় ৪ জন নিহত হয়েছেন। তবে বাসটি উল্টো পাশ দিয়েলেভেল ক্রসিং পার হতে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে তিনি জানান। তবে মতিঝিলজোনের ডিসি মো. আশরাফুজ্জামান বলেন, প্রাথমিকভাবে তিন জনের প্রাণহানিহয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, নিহতদের মধ্যে নাজমুস সাবানাজু (২২) নামের একজনের পরিচয় জানা গেছে। নাজুর বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুরউপজেলায়। তিনি দিনাজপুর সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী। নিহত নাজু দৈনিক জনকণ্ঠ- এর সাব এডিটর এবং ঢাকা সাবএডিটরস কাউন্সিলের দপ্তর সম্পাদক একেএম ওবায়দুর রহমানের স্ত্রী। ওবায়দুররহমানও ওই বাসে ছিলেন। ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালেভর্তি করা হয়েছে। তাদের সাথে থাকা ডলি (২৪) নামের আরেক তরুণী গুরুতর আহতহয়েছেন। তারা সায়েদাবাদ এলাকায় এক আত্মীয়ের বাসা থেকে বলাকা পরিবহনের বাসেকরে মগবাজার বাসায় ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন।

Leave a comment

Your email address will not be published.