ঝিনাইদহে প্রকাশ্যে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে খুনঝিনাইদহে প্রকাশ্যে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে খুন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর চাঁনপাড়া এলাকায় গতকাল রোববার দুপুরে একদল দুর্বৃত্ত স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ফিরোজ হোসেনকে (৩০) কুপিয়ে খুন করেছে। স্থানীয় ৮ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ আরাপপুর চাঁনপাড়া এলাকার আনসার আলীর ছেলে। স্থানীয়রা বলেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকা- ঘটেছে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রোববার দুপুর দেড়টার দিকে ফিরোজ মোটরসাইকেলযোগে ঝিনাইদহ শহরে আসছিলেন। তিনি বাড়ি থেকে চাঁনপাড়া রংধনু প্রি-ক্যাডেট স্কুলের সামনে পৌঁছুলে আগে থেকে ওঁত পেতে থাকা দুুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। তাকে পথচারীরা উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে বেলা ২টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. রুমন জানান, ঘাড়ের ডান দিকে মারাত্মক ক্ষত সৃষ্টি হওয়ার কারণে রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই ফিরোজের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া তার সারা শরীরেই ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।  ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌরসভার মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু জানান, নিহত ফিরোজ ওয়ার্ড সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা। শোনা যাচ্ছে দিপু নামে এক যুবক এ ঘটনার সাথে জড়িত। দিপু তাদের দলের কোনো লোক নয় বলেও সাইদুল করিম মিন্টু দাবি করেন। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফিরোজকে হত্যা করা হতে পারে। আমরা ঘটনার পরপরই খুনিদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছি। ঘাতকদের পায়ের স্যান্ডেল উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন, দুই মাস আগে দিপু নামে একটি ছেলেকে মরধর করে তার পা ভেঙে দেয় ফিরোজ। এই বিরোধের জের ধরে তাকে হত্যা করা হতে পারে। দিপুর পিতাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। অচিরেই খুনের রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলেও ওসি জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *