ঝিনাইদহে দেবরের লাঠির আঘাতে ভাবী নিহত

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: করুনা খাতুন (১৯) তার দেবরের ভালোবাসা তো পেলেনই না, তিনি দেবরের লাঠির আঘাতে প্রাণ হারিয়েছেন। করুনা খাতুন ঝিনাইদহ জেলা সদরের ভিটসর গ্রামের শুকুর আলীর স্ত্রী। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে দেবরের লাঠির আঘাতে খুন হন।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার এসআই ফরহাদ হোসেন জানান, গতকাল শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে দেবর মুকুল ভাবী করুনাকে তার কাপড় ধুয়ে দিতে বলেন। এ সময় ভাবী কটুক্তি করেন। দেবর মুকুল ভাবীর কথায় রাগান্বিত হয়ে তার মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ছয়টার দিকে মারা যান। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালমর্গে রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানায় এখনো কোনো মামলা হয়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *