ঝিনাইদহের হরিশঙ্করপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে কুপিয়ে ও গুলি করে খুন

 

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহের হরিশঙ্করপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছানার উদ্দীনকে (৫৫) কুপিয়ে ও গুলি করে খুন করেছে সন্ত্রাসীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার পানামী গ্রাম থেকে এ আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে খুন করা হয়।

দলের অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকাবাসীর ধারনা। নিহত ছানার উদ্দিনের বাড়ি সদর উপজেলার হরিশঙ্করপুর ইউনিয়নের আর্য্যনারায়ণপুর গ্রামে। খুনের নেপথ্য উন্মোচনে পুলিশ ইতোমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ হাসপাতালমর্গে নেয়ার প্রক্রিয়া করে পুলিশ। আজ শুক্রবার ময়নাতদন্ত শেষে নিজ গ্রামে লাশ দাফন করা হতে পারে।

এলাকাবাসী জানান, হরিশঙ্করপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলের জের ধরে বেশ কিছুদিন ধরে আওয়ামী লীগ নেতা ছানার উদ্দীন জীবনের ভয়ে গ্রামের বাইরে অবস্থান করছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে নিজ গ্রামে ফেরার জন্য পার্শ্ববর্তী পানামি গ্রামের রাস্তায় পৌঁছুলে ওত পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা তার ওপর তার হামলা চালায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। দীর্ঘদিন ধরে আর্য্যনারায়ণপুর গ্রামের অপর আওয়ামী লীগ নেতা ইবাদত হোসেনের সাথে বিরোধ চলে আসছিলো।

এদিকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আজিজুর রহমান জানান, সন্ত্রাসীরা তাকে খুন করেছে। তবে এটা দলীয় কোন্দল কি-না তা তিনি বলতে পারেননি। তিনি অবিলম্বে হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবি জানান। সদর থানার এসআই জিয়ারুল ইসলাম জানান, একদল সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগ নেতা ছানার উদ্দিনকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published.