ঝিনাইদহের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যানকে পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ শহরের নতুন হাটখোলা এলাকা থেকে গতকাল বুধবার দুপুরে ঝিনাইদহ জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর হরিণাকুণ্ডু উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদকে (৬২) পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। জামায়াত নেতা নুর মোহাম্মদের বাড়ি জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার কাপাশহাটিয়া গ্রামে। বর্তমান তিনি ঝিনাইদহ শহরের চাকলাপাড়ায় বসবাস করেন। নুর মোহাম্মদ ১৯৯১ সালে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
নূর মোহাম্মদের ছেলে মুজাহিদুল ইসলাম জানান, দুপুর দেড়টার দিকে তার বাবা নতুন হাটখোলার রাহাত অটো নামে একটি গ্যারেজে মোটরসাইকেলের কাজ করাচ্ছিলেন। এ সময় একটি মাইক্রোবাসে এসে কয়েকজন নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে তার হাতে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে তুলে নিয়ে যায়। তিনি আরো জানান, এ ঘটনার পর থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন এবং তার মোবাইলফোনটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। ঝিনাইদহ সদর থানার ডিউটি অফিসার এএসআই অশোক জানান, থানাহাজতে নুর মোহাম্মদ বলে কেউ আটক নেই। এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, বুধবার তাদের কোনো গ্রেফতার বা আটক নেই। পুলিশের কোর্ট টিমও অভিযানে যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৪ জানুয়ারি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কুটিদুর্গাপুর মাদরাসার শিক্ষক জামায়াত কর্মী আবু হুরাইরাকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে শাদা পোশাকের লোকজন তুলে নিয়ে যায়। ৩৬ দিন পর তার লাশ যশোরের আমবটতৈল এলাকা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি শৈলকুপা এলাকার একটি মাদরাসার শিক্ষক ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *