ঝিনাইদহের শৈলকুপা থেকে ১৯ ব্যারেল তেল উদ্ধার : গ্রেফতার ১

0
34

রাজবাড় থেকে ট্রাকভর্তি সয়াবিন তেল ছিনতাই ও ড্রাইভার হত্যাকাণ্ড

ঝিনাইদহ অফিস: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থেকে ছিনতাই হওয়া ট্রাকভর্তি সয়াবিন তেল ও ড্রাইভার হত্যাকাণ্ডের চাঞ্চল্যকর ঘটনায় ঝিনাইদহের শৈলকুপা থেকে ১৯ ব্যারেল তেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে একজনকে। গত রোববার রাতে শৈলকুপার কবিরপুর মন্দিরের পাশে সিদ্ধেশ্বরী ভাণ্ডার নামক গোডাউন থেকে এ তেল উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতার করা হয়েছে সয়াবিন তেল ক্রেতা গোডাউন মালিক পল্লব কুণ্ডুকে। সে নাগিরহাট গ্রামের শ্যামল কুণ্ডুর ছেলে। ১২ দিন আগে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ঘাট পার হয়ে মহাসড়কে এলে ১৫ লাখ টাকা মূল্যের ৬০ ব্যারেল সয়াবিন তেল ও ২০ লাখ টাকার ট্রাক ছিনতাই হয়ে যায়।

জানা গেছে, গত ৮ অক্টোবর ঢাকার কাঁচপুর এলাকার রূপচাঁদা মিল থেকে ৬০টি ড্রামে (৪০টি প্লাস্টিক ও ২০টি টিনের ড্রাম) সুপার সয়াবিন তেল পাটুরিয়া ঘাট হয়ে রাজবাড়ী যাচ্ছিলো। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ঘাট পার হয়ে রাস্তার ওপর পৌঁছুলে একটি মিনি ট্রাক তেলভর্তি ট্রাকটির গতিরোধ করে। এরপর অজ্ঞাতনামা ৪ ব্যক্তি ট্রাক ড্রাইভার সিরাজ (৫৫) ও হেলপার জাকিরকে নেশা জাতীয় পানিপান করিয়ে অচেতন করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ট্রাকড্রাইভার কুষ্টিয়ার কাথুলী গ্রামের নাদের বিশ্বাসের ছেলে সিরাজকে হত্যা করে। ছিনতাইকারীরা লাশটি মাগুরা-ঝিনাইদহ মহাসড়কের মাগুরা জেলার হাজরাপুর নামক স্থানে রাস্তার পাশে ফেলে দেয়। অচেতন হেলপারকেও সেখানে ফেলে দেয়। পরে হেলপার জাকিরের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী মাগুরা সদর থানায় বিষয়টি অবগত করে। থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে তদন্তে নামে।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা মাগুরা সদর থানার ওসি (তদন্ত) রেজাউল ইসলাম জানান, মোবাইল ট্রাকিঙের মাধ্যমে ঘটনার পর থেকে ক্লু উদ্ধারের চেষ্টা চলছিলো। যশোর থেকে ট্রাকটি উদ্ধার করা হয়। ১২ দিন পর রোববার ঝিনাইদহের শৈলকুপার কবিরপুর একটি গুদাম থেকে ছিনতাই হওয়া ৬০ ব্যারেল তেলের মধ্যে ১৯ ব্যারেল সয়াবিন তেল পাওয়া যায়। শৈলকুপা থানা পুলিশের সহায়তায় মাগুরা পুলিশ এ অভিযানে নামে।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় যে গোডাউন থেকে তেল পাওয়া গেছে সে গোডাউনের মালিক পল্লব কুণ্ডুকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রাজবাড়ি সদরের ব্যবসায়ী হাজি দেলোয়ার হোসেন এ সয়াবিন তেল ও ট্রাকের মালিক। তার আত্মীয় নাসিমুল হোসেন জানান, ৮ অক্টোবর রাতে তাদের ট্রাকভর্তি তেল ছিনতাই হয়। পরদিন ৮ অক্টোবর তারা ছিনতাইয়ের ঘটনা টের পান। মাগুরা থানা পুলিশ ড্রাইভারের লাশ উদ্ধার করে। এদিকে শৈলকুপা থেকে উদ্ধারকৃত ১৯ ব্যারেল তেলের দাম প্রায় ৬ লাখ টাকা বলে জানান মালিকপক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here