ঝিনাইদহের শৈলকুপায় শরবত পান করিয়ে হত্যা

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় জিহাদ (৩০) নামের এক যুবককে শরবত পান করিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নতুনভক্ত মালিথিয়া গ্রামে। অভিযুক্ত একই গ্রামের মসলেম উদ্দিন ঘটনার পরপরই পলাতক রয়েছে।

নিহত জিহাদের শাশুড়ি কুলসুম বেগম অভিযোগ করেন, গত ১০ মাস আগে তার মেয়ের সাথে বরিশাল জেলার আলী আকবর শেখের ছেলে জিহাদের বিয়ে হয়। সেই থেকে সে এখানে বসবাস শুরু করে। ৫/৬ মাস আগে প্রতিবেশী মসলেম উদ্দিনের সাথে তার জামাই পোল্ট্রি ফার্মের ব্যবসা শুরু করে। কিছুদিন পরে আর্থিক লেনদেন নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। মৃত্যুর কয়েকদিন আগে মসলেমের মোবাইল হারানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার ওপর কুফরি কালাম করে। এ ঘটনায় জিহাদ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে সে সুস্থ বলে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মসলেম তাকে সুস্থ করার জন্য পার্শ্ববর্তী মাগুরা জেলার চর চাকদা গ্রামের হাফেজিয়া মাদরাসার হুজুর আব্দুল মালেককে তাদের বাড়িতে নিয়ে আসে। সে আমার জামাইকে হুজুর দিয়ে চিনির শরবত পান করানো হয়। এর কিছুক্ষণ পরেই জিহাদ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

শৈলকুপা থানার ওসি তরিকুল ইসলাম বলেন, বুধবার লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আপাততো অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। হত্যার আলামত পেলে হত্যা মামলা নেয়া হবে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *