ঝিনাইদহের শৈলকুপায় গ্রাম্য মাতবরকে কুপিয়ে খুন :আটক ২

 

 

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাঈদ মণ্ডল (৫৫) নামে এক গ্রাম্য মাতবরকে কুপিয়ে খুন করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার সিংনগর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এসময় বাধা দিতে যাওয়ায় ৩ জন আহত হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তুষার ও আশরাফুল নামে দুজনকে আটক করেছে। নিহত সাঈদ সিংনগর গ্রামের মৃত বুধই মণ্ডলের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, আধিপাত্য বিস্তার নিয়ে গ্রামের আব্দুল সাত্তার ও আব্দুল মোতালেব পক্ষের সাথে সাঈদ মণ্ডলের দ্বন্দ্ব ছিলো। গ্রামে মাঠের জমি নিয়ে দু পক্ষের মধ্যে বছরের পর বছর বিরোধ চলে আসছিলো। সাঈদ মণ্ডল সকাল ৮টার দিকে তার ছেলেকে প্রাইভেট পড়াতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে প্রতিপক্ষের লোকের তার ওপর হামলা চালায়। ধারালো অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে তাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় ফেলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সিংনগর গ্রামের আমজাদ, নজো, মোতাহার, রবি মেম্বারসহ বেশ কিছু লোক এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত বলে পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ। হামলার সময় বাধা দিতে যাওয়ায় এক নারীসহ তিনজন আহত হয়েছেন। আহতদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। জড়িত সন্দেহে পুলিশ দুজনকে আটক করেছে।

এদিকেনিহত আবু সাঈদ বিএনপিকর্মী বলে দাবি করেছেন ঝিনাইদহ-১ (শৈলকুপা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য শৈলকুপা উপজেলা বিএনপির সভাপতি এমএ ওহাব। তিনি বলেন, আবু সাঈদবিএনপি সমর্থিত গ্রামের মাতবর ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.