ঝিনাইদহের ডাকবাংলা বাজারে অটো রাইচ মিলের বয়লার বিস্ফোরনে ভবন ধসে দু শ্রমিক নিহত : দু শ্রমিক দগ্ধ

ডাকবাংলা প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডাকবাংলা বাজারে নারায়নপুর ত্রীমোহনী এলাকার ইফাদ অটো রাইচ মিলের বয়লার বিস্ফোরনে ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। গতরাত আনুমানিক ১০টার দিকে বিকট শব্দে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরিত বয়লারে ঘরের চালসহ ঘরটি তছনছ হয়ে যায়।ধসে পড়ে ছাদ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ইফাদ অটো রাইচ মিলটি চালু অবস্থায় রাত ১০টার দিকে ইফাদ অটো রাইচ মিলের বয়লারটি বিকোট শব্দে বিস্ফোরিত হয়। এতে মিলটির একটি গোডাউনের ছাদ ধ্বসে পড়ে। খবর পেয়ে ঝিনাইদহ থেকে দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কাজ শুরু করে। এলাকাবাসী ও দমকল বাহিনী উদ্ধারকাজ চালানোর সময় ২ জনের লাশ উদ্ধার করে। খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি, ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন।

জানা গেছে, ঝিনাইদহ জেলা সদরের ডাকবাংলা নারায়নপুর ত্রীমোহনী এলাকায় অবস্থিত ইফাদ অটো রাইচ মিল।  ব্রয়লার বিস্ফোরনে সফিউদ্দীন (৩৫) ও আসলাম হোসেন (৪০) নিহত হয়েছেন। এ সময় দগ্ধ হয়েছেন, আব্দুল্লাহ (২৮) ও খায়রুল হোসেন নামে দুই শ্রমিক। নিহত সফিউদ্দীন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নওদাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ও আসলাম হোসেন শৈলকুপা শহরের তক্কেল হোসেনের ছেলে। দগ্ধ আব্দুল্লা কে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে রেফার্ড করা হয়েছে।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডাকবাংলা পুলিশ ক্যাম্পের তদন্ত কর্মকর্তা মনজুর ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে পানি স্বল্পতার কারণে নারায়নপুর ত্রীমোহনী এলাকায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলাউদ্দীন আল মামুনের অটো রাইচ মিলের ব্রয়লার প্রচন্ড শব্দে বিস্ফোরিত হয়। তিনি আরো জানান, বিস্ফোরনের শব্দে আশপাশ কয়েক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে কেঁপে ওঠে। এ সময় অটো রাইচ মিলের ভবনসহ বিভিন্ন স্থপানা ধ্বসে পড়লে ভবনের নিচে চাপা পড়ে কর্মরত পালনরত শ্রমিকরা। খবর পেয়ে আশপাশের শত শত গ্রামবাসি, ডাকবাংলা পুলিশ ক্যাম্প ও ঝিনাইদহ দমকল বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার কাজে অংশ নেন। রাত ১২টার দিকে উদ্ধার কাজ শেষ হয়।  ঝিনাইদহ দমকল বাহিনীর স্টেশন অফিসার লুৎফর রহমান খান ঘটনাস্থল থেকে জানান, ভবনের নিচে দুইজন শ্রমিক চাপা পড়ে এবং তারা নিহত হন। তিনি জানান, আব্দুল্লা ও খায়রুল নামে দুইজনকে মারাত্মক দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠানো হলে আব্দুল্লা হকে মুমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা পাঠানো হয়। তিনি আরো জানান, কি কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত ছাড়া বলা যাচ্ছে না। লাশ উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে আনা হয়েছে। আহত খাইরুল জানান মিস্ত্রী আসলাম হোসেন কে কয়েক বার বললাম গ্যাস বেসি হয়ে গেছে, গ্যাস কোমাও। আমার কথা শুনলো না । ইফাদ অটো রাইচ মিলের মালিক স্থানীয় আলাউদ্দীন আল মামুন জানান মিস্ত্রীদের অসাভধানতার কারনে এই দুর ঘটনা ঘটতে পারে। মালিকপক্ষ জানিয়েছে, ৪জন শ্রমিক কাজ করছিলো তাদের মধ্যে দুজনকে উদ্ধার করা হয়েছে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায়, দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আর কেউ নেই বলেই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়। তবে আজ সকালে পুনরায় উদ্ধার তৎপরতা চলানোর কথা।

1

Leave a comment

Your email address will not be published.