জ্বলন্ত চুলার পাশে অসাড় নারী অগ্নিদগ্ধ : মৃত্যু

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুলার পাশে অসাড় পড়ে ছিলেন তিনি। বাম হাতে জ্বলছে আগুন। বাড়ির লোকজন দৃশ্য দেখে দ্রুত উদ্ধার করে মধ্যবয়সী নারী রেহেনা বেগমকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেন যখন, তখন সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৬টা। জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রাজিবুল ইসলাম তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, অনুমানিক ৪৮ বছর বয়সী রেহেনা খাতুন চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার ফকিরপাড়ার শওকত আলীর স্ত্রী। দু ছেলে এক মেয়ের জননী রেহেনা বেগম প্রতিদিনের মতো গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় নিজের বাড়ির রান্নাঘরে বসে রান্না করছিলেন। এ সময় কী এমন ঘটলো যে, তিনি অসাড় হয়ে পড়ে থাকলেন চুলার পাশে। বাম হাতটি হয়ে গেলো জ্বালানিকাঠ? নিকটজনেরাও স্পষ্ট করে বলতে পারেননি। তবে তাদের অনুমান সম্ভবত হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। চিকিৎসক অবশ্য তেমন কোনো মন্তব্য করেননি। তেমন আপত্তিও তোলেননি তিনি।

পরিবারের লোকজন ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেছেন, কখন যে রেহেনা বেগম চুলার পাশে পড়ে গেছেন। কীভাবে যে জ্বলন্ত চুলার মধ্যে বাম হাতটি ঢুকে আগুন ধরেছে তা বোঝাই যায়নি। যখনই সেদিকে বাড়ির এক সদস্যের চোখ পড়েছে তখনই তার চিৎকারে সকলে ছুটে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *