জেলা-উপজেলায় ইসলামি সাংস্কৃতিক শিক্ষাকেন্দ্র হবে

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানুষকে ইসলামের সংস্কৃতি শিক্ষা দিতে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলায় একটি করে মসজিদ ও ইসলামি সাংস্কৃতিক শিক্ষাকেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। এক্ষেত্রে সৌদি সরকার আর্থিক সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে। মুষ্টিমেয় কিছু মানুষ যাতে ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে সমাজের ক্ষতি করতে না পারে সেজন্যই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আসলে ইসলাম ধর্ম কী, আমাদের জীবনযাত্রায় ইসলাম কী শিক্ষা দেয়, এসব ব্যাপারে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে পারলে কেউ আর বিপথগামী হবে না। আর ইসলামের নামে যারা বিপথগামী হয়েছে তাদের কিভাবে ফিরিয়ে আনা যায় সেটা আলেম-উলামাদের ঠিক করতে হবে। দেশ থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ উচ্ছেদে আলেম-উলামাদেরকে আরো সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষি ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বাংলাদেশ জমিয়তুল ওলামার উদ্যোগে আয়োজিত ‘ইসলামের দৃষ্টিতে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ এবং আমাদের করণীয়’ শীর্ষক উলামা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। ধর্মের নামে যারা জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে অশান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে, তাদের প্রতিহত করতেই ইসলামের সঠিক বার্তা নিয়ে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা দেশব্যাপী প্রায় লক্ষাধিক উলামার স্বাক্ষর সম্বলিত বিশেষ ফতওয়া জারি করে। অনুষ্ঠানে ৩০ খণ্ড ‘ফতওয়ার’ একটি খণ্ড প্রতীকী হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন শোলাকিয়া ঈদ জামাতের গ্রান্ড ইমাম ও বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার সভাপতি মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ।

কোরআন ও হাদিসের আলোকে দেয়া এ ফতওয়া জঙ্গিবাদ দূর করার পাশাপাশি ইসলাম সম্পর্কে বিরূপ মনোভাব দূর করতে সহায়ক হবে আশাবাদ ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানবকল্যাণ ও শান্তির জন্য আপনারা একটা মহত্ উদ্যোগ নিয়েছেন, এজন্য আপনাদের ধন্যবাদ জানাই। এটা আপনাদের নিজেদের কোনো সৃষ্টি নয়, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে পবিত্র কোরআনে যা আছে, নবী করিম (স.) যা বলেছেন, তা থেকেই জাতির জন্য এই ফতওয়া তৈরি করেছেন আপনারা। নিশ্চয়ই এই এক লাখ আলেম কখনও মিথ্যা কথা বলবেন না। ইসলামের নামে অঘটন ঘটিয়ে যারা এ ধর্মকে খাটো করছে, এই ফতওয়া তাদের রুখে দেবে। এটা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে হবে। কারণ সবাই যেন বোঝে, যারা ইসলামের নামে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদী তত্পরতা চালাচ্ছে তারা আসলে এ ধর্মের কেউ নয়। আর মুষ্টিমেয় ব্যক্তির জন্য পবিত্র ধর্ম ইসলামকে খাটো করা যাবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *