জীবননগর হাসাদহের নববধূ বৈশাখীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ

জীবননগর ব্যুরো: গত সোমবার রাতে ঘরের ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহননকৃত নববধূ বৈশাখীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসআই শেখ সোয়েব আলী গতকাল মঙ্গলবার সকালে ফোর্স নিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালমর্গে প্রেরণ করেছে। ওসি এনামুল হক জানিয়েছেন এ ঘটনায় থানাতে একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যাপারে গতকাল মঙ্গলবার দৈনিক মাথাভাঙ্গায় ‘মেহেদীর রঙ মোছার আগেই লাশ হলো জীবননগর হাসাদাহের নববধূ বৈশাখী’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার হাসাদাহ ঘুষিপাড়ার আরজুল্লাহ ছেলে সামাউলের বয়স মাত্র ২৮ বছর। এ বয়সেই সে এলাকায় বিয়ে পাগল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। একে একে সে বিয়ে করেছে ৩টি। সর্বশেষ সে ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের শামসুল ইসলামের মেয়ে বৈশাখীকে মাত্র ২০ দিন পূর্বে বিয়ে করে। পূর্বের ২টি বিয়ের কথা গোপন করে বিয়ে করায় এ নিয়ে নববধূর সাথে তার চলছিলো চরম বিবাদ। সোমবার রাত আনুমানিক ৯টার দিকে তাকে তার ঘরের ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। থানা অফিসার ইনচার্জ এনামুল হক জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। ঘটনাস্থলে একজন সাব ইন্সপেক্টর গেছেন। লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালমর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

 

 

Leave a comment

Your email address will not be published.