জীবননগর থানা পুলিশের অভিযানে অপহরণ হওয়া রুপভান উদ্ধার : অপহরণকারী আটক

 

 

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর থানা পুলিশের অভিযানে অপহরণ হওয়া রুপভানকে উদ্ধার করা হয়েছে। জীবননগর থানার সেকেন্ড অফিসার লুৎফর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল শুক্রবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে দামুরহুদা উপজেলার নাস্তিপুর গ্রামের আবুল হোসেনের বাড়ি থেকে রুপভানকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। এবং অপহরণকারী শুকুর আলীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়,জীবননগর মহানগরপাড়ার লালচাঁদ মণ্ডলের ছেলে শুকুর আলী(৩২) ইতঃপূর্বে চারটি মেয়ের সাথে সংসার বেধেছে। এ পর্যায়ে কিছুদিন আগে তার চোখ পড়ে জীবননগর থানা মোড়ের রবি মিস্ত্রীর স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে রুপভানের(১৪) ওপর। মাত্র ১৫দিন সম্পর্কের মাথায় শুকুরআলী ৫ জুলাই রুপভানকে অপহরণ করে দামুরহুদা উপজেলার নাস্তিপুর গ্রামের আবুল হোসেনের বাড়িতে রাখে। এঘটনায় রুপভানের পরিবারের সদস্যরা জীবননগর থানায় ৪জনের বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ করে। পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে ১জনকে গ্রেফতার করে চুয়াডাঙ্গা জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

 

রোগীর মৃত্যু : হাসপাতালে অক্সিজেন দেয়ায় গড়িমসির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তির পরও ঠিক মতো অক্সিজেন না পেয়ে ৫৫ বছরের ইজারনকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে হয়েছে। ইজারনের ছেলে দলিয়ারপুরের মহিদউদ্দীন এ অভিযোগ করে বলেছেন, নার্সদের কর্তব্য অবহেলার কারণেই মাকে শেষ পর্যন্ত বাঁচানো গেলো না।

মহিউদ্দীন ঘটনার বিস্তারিত বণর্না দিতে গিয়ে বলেন, মা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। বেলা ১১টার দিকে ভর্তি করিয়ে ফিমেল মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসক দ্রুত অক্সিজেন দেয়ার জন্য বলেন। ওয়ার্ডে ভর্তির পর অক্সিজেন সিলিন্ডারেরই হদিস মিলছিলো না। যদিও বা পাওয়া গেলো। তাতে ঠিকমতো অক্সিজেনই ছিলো না। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি।

বিকেল ৩টার দিকে মারা যান ইজারন। তিনি দলিয়ারপুর গ্রামের আরশেদ মণ্ডলের স্ত্রী। গতকালই নিজ গ্রামে দাফনকাজ সম্পন্ন করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.