জীবননগর গয়েশপুর সীমান্তে পাঁচ বাংলাদেশিকে আটক করে ভারতীয় পুলিশে সোপর্দ করেছে সে দেশের নাগরিকরা

 

জীবননগর ব্যুরো: চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার গয়েশপুর সীমান্তের ভারতীয় অংশ বানপুর থেকে ভারতীয় নাগরিকরা পাঁচ বাংলাদেশিকে আটক করে ভারতীয় পুলিশে সোপর্দ করেছে। অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ হাঁসখালী থানায় নেয় পুলিশ। আটককৃত সকলেই বাংলাদেশি এবং তাদের বাড়ি জীবননগর উপজেলার গয়েশপুর গ্রামে। মারামারি একটি মামলায় গ্রেফতার এড়াতে তারা সকলে ভারতের অভ্যন্তরে গিয়ে লুকাতে গিয়ে এ পরিস্থিতিতে পড়েছে বলে বিজিবি নিশ্চিত করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার।

বিজিবির গয়েশপুর কোম্পানি কমান্ডার আওয়াল হোসেন জানান, গয়েশপুর গ্রামের পাচু মালিতার ছেলে রবজেল আলী (২৮), মৃত মান্দার আলীর ছেলে শুকুর আলী (২৫), ইয়াকুব আলী মণ্ডলের ছেলে জিয়া (২২), মান্নান ফকিরের ছেলে ফিরোজ (২৫) ও হেবার ছেলে মোহাম্মদ মিয়া (৩০) গত বুধবার প্রতিপক্ষের সাথে মারামারি করে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে ভোরে পুলিশ গ্রেফতার অভিযান পরিচলানা করে। এ সময় গ্রেফতার এড়াতে তারা ভারতের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে বানপুর গ্রামের একটি বাগানে আশ্রয় নেয়। ভারতের বানপুর গ্রামের ১০-১৫ জন নাগরিক ওই বাংলাদেশি পাঁচ নাগরিককে ধরে ভারতীয় পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে ভারতের নদীয়া জেলার হাঁসখালী থানা পুলিশ।

চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল গাজী মো. আসাদুজ্জামান পিএসসি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটক পাঁচ বাংলাদেশিকে পঞ্চায়তের মাধ্যমে ভারতীয় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে বিজিবিকে জানিয়েছে বিএসএফ। গ্রামবাসী জানিয়েছে, মারামারির ঘটনায় জীবননগর থানায় উভয় গ্রুপ পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করেছে। এ ঘটনায় উভয় গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *