জীবননগরে প্রবীণদের মাঝে ভাতা বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি আলী আজগার টগর

 

জনসম্পদে পরিণত করতে প্রবীণদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি

জীবননগর ব্যুরো: চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ইউনিয়নের প্রবীণদের মাঝে বয়স্কভাতা বিতরণ করা হয়েছে। একই সাথে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রবীণ সমাবেশে। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রবীণদের মাঝে ভাতার অর্থ বিতরণ করেন এবং শেষে প্রবীণ সামবেশে বক্তব্য রাখেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সীমান্ত ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনের হলরুমে এ প্রবীণ সামবেশ অনুষ্ঠিত হয়। শেষে তিনি মনোহরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আয়োজিত শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সমাবেশে শিক্ষার উন্নয়ন নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। প্রবীণ সমাবেশে প্রধান অতিথি সাংসদ হাজি আলী আজগার টগর তার বক্তৃতায় বলেন, প্রবীণরা সমাজের বোঝা নই। এটা আমাদের সকলকে অনুধাবন করতে হবে। সমাজের বোঝা মনে করে তাদেরকে অবহেলা করা চলবে না। প্রবীণদের জ্ঞান ভান্ডার অত্যান্ত সমৃদ্ধ। সমাজ ও দেশের উন্নয়নে তাদের সেই জ্ঞান ভাণ্ডারকে কাজে লাগাতে হবে। তিনি বলেন, প্রবীণদরে জনসম্পদে পরিণত করতে আমি সর্বদা তাদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। তিনি বলেন, সীমান্ত ইউনিয়নে নির্মিত প্রবীণ কেন্দ্রের উন্নয়নে আমি যথাসাধ্য সহযোগিতা করার চেষ্টা করে যাবো।

সীমান্ত ইউনিয়ন প্রবীণ সংগঠনের সভাপতি সাবেক সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তূজা, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান আবু. মো. আব্দুল লতিফ অমল, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, জেলা পরিষদ সদস্য মোসাবুল ইসলাম লিটন, সীমান্ত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল মালেক মোল্লা, সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন ময়েন ও  সীমান্ত ইউনিয়ন প্রবীণ সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান। ওয়েভ ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় সীমান্ত ইউনিয়ন প্রবীণ সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ওয়েভ ফাউন্ডেশনের সমৃদ্ধি কর্মসূচি প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী কামরুজ্জামান যুদ্ধর পরিচালনায় সমাবেশে সীমান্ত ইউনিয়নের ৭৫ প্রবীণকে ৬শ টাকা করে ৪৫ হাজার টাকার ভাতা প্রদান করা হয়।

পরে তিনি মনোহরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে পৌঁছুলে স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এ সময় তিনি এখানে অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *