জীবননগরে পল্লী বিদ্যুতেরউথলী সাবস্টেশনে হামলা

 

 

জীবননগর ব্যুরো: বিদ্যুত বিল বকেয়া থাকার কারণে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় উপজেলার উথলী পল্লী বিদ্যুত সাবস্টেশনে হামলা চালিয়েছে যুবলীগ নামধারী ক্যাডাররা। এ সময় তারা উপকেন্দ্রে দায়িত্বরত কর্মচারী হুমায়ন কবিরকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে এবং অফিসের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি ভাঙচুরের উদ্দেশে বাইরে ফেলে দেয়।

পল্লী বিদ্যুত অফিসসূত্রে জানা গেছে, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতি গত রোববার উপজেলার উথলী এলাকায় বকেয়া বিদ্যুত বিলের কারণে বেশ কয়েকটি বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। এরপর সন্ধ্যার দিকে যুবলীগ নামধারী ক্যাডার উথলী গ্রামের মৃত কালু মণ্ডলের ছেলে ঝনু (২৫) ও সেনেরহুদা গ্রামের আবু জাফরের ছেলে আলমগীর হোসেনের (২৬) ৭-৮ জন ক্যাডার নিয়ে উথলী পল্লী বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে হামলা চালায়। এ সময় তারা উপকেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মচারী হুমায়ন কবিরকে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ঝনু জানান, গ্রামের অনেকের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকলেও বৈষ্যমমূলকভাবে কেবলমাত্র তার লাইন বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে যাওয়া হলেও কাওকে মারপিট কিংবা মোটরসাইকেল ফেলে দেওয়া হয়নি বলে তিনি দাবী করেন। এ ব্যাপারে মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আঞ্চলিক পরিচালক মো. হায়দার আলী জানান, অভিযুক্ত ঝনুর কোন সংযোগ নেই। সে অবৈধভাবে সাইড লাইন নিয়েছে। যে বাড়ি হতে সে সাইড লাইন নিয়েছে ঐ বাড়ির বিল বকেয়া থাকায় তা সংযোগ করা হয়। তিনি জানান হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *