জীবননগরের মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া নাতি সেজে কারারক্ষীর চাকরি : অতঃপর তদন্তে পড়লো ধরা

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগরের প্রকৃত এক মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া নাতি সেজে মুক্তিযোদ্ধা সনদ দিয়ে কারারক্ষীর চাকরি পাওয়া মিলন নামের এক ব্যক্তির তদন্তকালে মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া নাতি হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। কারারক্ষীর চাকরিপ্রাপ্ত যশোর জেলার চৌগাছা থানার বাদেখানপুর গ্রামের মৃত ফজলুর রহমানের ছেলে মিলন রহমান মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া নাতি সেজে মুক্তিযোদ্ধা সনদ দিয়ে এ চাকরি লাভ করেন। গতকাল সোমবার মিলন রহমানের মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্রের সঠিকতা যাচাইয়ের নিমিত্তে জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজেদুর রহমান সরেজমিনে তদন্তকালে মিলন রহমানের সাথে মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের রক্তের কোনো সম্পর্ক নেই বলে প্রমাণ পান। জানা যায়, কিছুদিন আগে জীবননগর উপজেলার পিয়ারাতলায় অবস্থিত আব্দুল কাদের মাস্টারের ছেলে মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, মিলন রহমানের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্রের জন্য মিলন রহমানকে নাতি সাজিয়ে জীবননগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার বদরউদ্দিনের নিকট থেকে মুক্তিযোদ্ধার নাতি হিসেবে প্রমাণপত্র সংগ্রহ করেন। বিষয়টির তদন্তকারী জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজেদুর রহমান জানান, সরেজমিনে তদন্ত করে মিলন রহমানের সাথে মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের রক্তের কোনো সম্পর্ক নেই বলে তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.