জঙ্গিবাদমুক্ত দেশ গড়ার প্রত্যয়

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের উদ্যোগে জাতীয় সংসদ ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা, আলোচনাসভা ও দোয়া মহাফিলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের হুইপ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ারদ্দার ছেলুন এমপি। বিশেষ অতিথি আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান কাদির গনু, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আরশাদ আলি চন্দন, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্টাতা সভাপতি খন্দকার তারেক রায়হান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ শরীফুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি রুবাইত বিন আজাদ সুস্থির, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের দফতর সম্পাদক রাজিব চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক সোহান শিকদার। উপস্থিত ছিলো বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সদস্য রাব্বী, শামীম, অনিক, রিফাত, হারুন, মনির, আতিক, চুয়াডাঙ্গার জেহালা ইউপি আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হাসানুজ্জামান হান্নান ও অ্যাড. মোকলেছুর রহমান।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, বাংলাদেশের খুশির দিন’ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশুদিবস ২০১৭ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমির মুক্তমঞ্চে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দেব প্রসাদ পালের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সেখ সামসুল আবেদীন খোকন, পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান ও জেলা জজ কোর্টের পিপি অ্যাড. শামসুজ্জোহা। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও আলমডাঙ্গা) তরিকুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা ও জীবননগর) কলিমুল্লাহ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আনজুমান আরাসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ।

চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশুদিবস পালিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল সোয়া ৭টায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় চত্বরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস জাতীয় পতাকা এবং জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। পতাকা উত্তোলনের পর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ধারাবাহিকভাবে যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন ও সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি খুশতার জামিল, সাংগাঠনিক সম্পাদক আলমগীর হান্নান, জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ও জজ কোর্টের পিপি মহ. শামশুজ্জোহা, প্রচার সম্পাদক ফেরদৌস আরা সুন্না, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল মালেক, শ্রমিক লীগের সভাপতি আফজালুল হক, উপপ্রচার সম্পাদক শওকত আলী বিশ্বাস, দফতর সম্পাদক অ্যাড. আবু তালেব বিশ্বাস ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুম প্রমুখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভা, সাংস্কৃতিক ও রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যক্ষ প্রফেসর নওরোজ মোহাম্মদ সাঈদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপাধ্যক্ষ ড. জাহাঙ্গীর আলম, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মফিজুর রহমান, অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক মো. শাহীনুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতির দায়িত্ব পালন করে, বাংলা বিভাগের প্রধান ড. মো.আব্দুর রশীদ। অনুষ্ঠানের পদার্থ বিভাগের প্রভাষক নাজনীন আরা পারভীন কবিতা আবৃত্তি করেন এবং শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে সাবিনা আকতার বক্তব্য রাখেন। কলেজের অনুষ্ঠানের সাথে কলেজ প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিক্ষক-কর্মচারি-শিক্ষার্থীরা র‌্যালি সহযোগে শিল্পকলা একাডেমিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বাংলাদেশ ডিপ্লোমা মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা র‌্যালি শেষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

জাতীয় মহিলা সংস্থা চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস  উপলক্ষ্যে আলোচনাসভার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতিত্ব করেন জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান নাবিলা রুখসানা। প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুর ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন। বিশেষ অতিথি  ছিলেন জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর বেগমসহ জাতীয় মহিলা সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটির সম্মানীত সদস্যবৃন্দ।

শিশু দিবস উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্যবিভাগের উদ্যোগে র‌্যালি বের করা হয়। ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. আলী হোসেনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএমএর সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদত হোসেন, ডা. পরিতোষ কুমার ঘোষ, ডা. আবুল হোসেন, ডা. আসাদুজ্জামান মালিক খোকন, ডা. মাহাবুবুর রহমান মিলন, ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন, ডা. তারিক, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রাজিবুল ইসলাম প্রমুখ।

চুয়াডাঙ্গা ফাযিল মাদরাসায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আল-হাজ্জ মীর মো. জান্নাত আলী। উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক আবুল হাশেম, রয়ায়ন বিভাগের প্রভাষক আতিয়ার রহমান, বাংলা বিভাগের আবু যায়েদ আনসারী, জামান আক্তারসহ শিক্ষক মণ্ডলি।

চুয়াডাঙ্গা রেলবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের সার্বিক দায়িক্তে ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি নাসির আহাদ জোয়ার্দ্দার ও প্রধান শিক্ষক লতিফুনেচ্ছা।

চুয়াডাঙ্গা ডিল্পোমা ইনঞ্জিনির্য়াস ইনস্টিটিউট চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানের কার্যালয়ে জন্মবার্ষিকী ও শিশু দিবস উপলক্ষে কেক কাটা হয়। কেক কাটেন এ প্রতিষ্ঠানের সভাপতি তরুণ জোয়ার্দ্দার।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সীমান্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও কেক কেটে জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিসেস মেহজেবিন। এ সময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দিবসটি উপলক্ষে ডিঙ্গেদহ বালিকা বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শরিফ উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন শঙ্করচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান। বক্তব্য রাখেন এসএমসির সদস্য শওকত আলী, মাসুদ হোসেন, তাহাজদ্দিন, সাইফুদ্দিন, শিক্ষক বাবুল হোসেন ও মাহবুবুর রহমান। দোয়া পরিচালনা করেন সহকারী শিক্ষক লোকমান হোসেন।

অপরদিকে, তিতুদহ ইউনিয়নের গিরীশনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুর মোহাম্মদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হায়দার মল্লিক। দোয়া পরিচালনা করেন ধর্মীয় শিক্ষক আমিরুল ইসলাম। সকালে কেক কাটার পর একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি গিরীশনগর বাজার প্রদক্ষিণ করে।

বেগমপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, গতকাল শুক্রবার চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হিজলগাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এ দিবস পালিত হয়েছে। দিনটির মধ্যে ছিলো জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা, আলোচনা ও দোয়ার মাহফিল। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন স্বপন, সহপ্রধান শিক্ষক আলী হোসেন, সদস্য নিয়ামত আলী, মিঠু প্রমুখ। এছাড়াও খাড়াগোদা, তিতুদহ, বেগমপুর-যদুপুর, কোটালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দিবসটি যথাযথ মর্যাদার সাথে পালিত হয়েছে।

সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দিবসটি উপলক্ষে তেতুল শেখ কলেজের দোয়া ও আলোচনাসভা আয়োজন করা হয়। কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজি আব্দুল্লা শেখের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন পদ্মবিলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহের বিশ্বাস। প্রভাসক খাইরুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়া ছাদেমান নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও পদ্মবিলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহের বিশ্বাস প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল্লাহ শেখ, প্রধান শিক্ষক আবু সালেহ প্রমুখ।

সরোজগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে র‌্যালি শেষে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা, পরিচালনা কমিটির সদস্য জিল্লুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আকবর আলী প্রমুখ।

বদরগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দিবসটি উপলক্ষে আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. আব্দুল মোতালেবের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. আলী আহমেদ হাসানুজ্জামান মানিক। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাবেক চেয়ারম্যান হাজি শাখাওয়াত হোসেন টাইগার প্রমুখ। বদরগঞ্জ বাকীবিল্লাহ কামিল মাদরাসায় অধ্যক্ষ মাও. আব্দুল জলিল হাওলাদারের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো.শাখাওয়াত হোসেন টাইগার।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মধ্যদিয়ে আলমডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধুর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস পালন করা হয়েছে। আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন, রাজনৈতিক দল, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠণ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিনম্র শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, র‌্যালি, কেক কাটা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। সকালে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে আলোচনাসভা ও কেক কাটা হয়। আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজাদ জাহান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল ইমরান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুণ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম আরা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকরাম হোসেন, ওসি (তদন্ত) মেহেদী রাসেল, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মজিবর রহমান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শফিউর রহমান জোয়ার্দ্দার সুলতান, মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক শাহাবুদ্দীন সাবু, শেখ নুর মোহাম্মদ জকু, মৎস্য অফিসার মইনুল ইসলাম, সমাজ সেবা অফিসার আবু তালেব, শিক্ষা অফিস আকবার আলী প্রমুখ।

অপরদিকে,  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর শাখার উদ্যোগে দিবসটি উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি পালন করা হয়। সকালে দলীয় অফিসে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, বিকালে র‌্যালি ও সন্ধ্যায় জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। এসব কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মজিবর রহমাননের সভাপিতত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আওরঙ্গজেব মোল্লা টিপু। উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলি মাস্টারের উপস্থাপনায়  বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের বন পরিবেশ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশিষ্ঠ নেতা আবুল কালাম আজাদ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু মুসা, ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম আরা, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিয়ার রহমান, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন, ক্রিড়া সম্পাদক বিআরডিবি চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলাম মহিদ, শ্রম সম্পাদক আহসান মৃধা, ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, নুরুল ইসলাম, আবু সাঈদ পিন্টু, ইন্দ্রজিত দেব শর্মা, পৌর কাউন্সিলর সদর উদ্দিন ভোলা, যুবলীগ নেতা মতিয়ার রহমান ফারুক, পরিমল কুমার, পিয়ার মোহাম্মদ কচি, পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনাহার, রাজাবুল হক মনা, সাইফুর রহমান পিন্টু, আশাদুল হক ডিটু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আবু জাফর, রেজাউল হক, কামাল হোসেন, টুটুল, ইকলুস, ডালিম, টগর, ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুল হক, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি নয়ন সরকার, সম্পাদক মিডেল পারভেজ, যুগ্ম সম্পাদক নাহিদ হাসান তমাল, রুবেল, হাসানুজ্জামান হাসান  প্রমুখ।

অপরদিকে, আলমডাঙ্গা বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমি দিবসটি উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সকাল ৮টায় জেএন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে পতাকা উত্তোলত, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও জন্মবার্ষিকীর কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ সেখ সামসুল আবেদীন খোকন। বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমির সভাপতি মাসুদ সালেহীন উৎপলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, কেন্দ্রী যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ ও ছাত্রলীগ নেতা জানিফ। জেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য সোহেল রানা শাহিন, সাদেকুর রহমান পলাশ, তরিকুল ইসলাম টুকুলের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন শিশু একাডেমির যুগ্ম আহ্বায়ক রকিবুল ইসলাম রনি, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাবেক খাসকররা ইউপি চেয়ারম্যান তাফসির আহমেদ মল্লিক লাল, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রিফাত, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি মিজানুর রহমান মিজান প্রমুখ। বিকেলে বঙ্গবন্ধু জন্মবার্ষিকী ও শিশু দিবস উপলক্ষে নানা রকম খেলা ধুলার আয়োজন করেন। সন্ধ্যায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ সেখ সামসুল আবেদীন খোকন প্রধান অতিথি থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন।

সৃজনী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যাপীঠ এ দিবসের কর্মসূচি পালন করে। তত্ত্বাবধান করেন সহকারী প্রধান শিক্ষক আতিকুল হক বুলবুল। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাড়াদী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, এ দিবসটি উপলক্ষে কঁটাভাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাসুদুল মান্নানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি এসএম আবেদ আলি শামিম। সহকারী শিক্ষিকা নাজমা আকতার বানুর উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন সিনিয়র শিক্ষক শীব প্রসাদ সাহা,  নাসীর আলম, ইখতিয়ার উদ্দিন ও রুমানা ইয়াসমিন। শিশু দিবসের কেক কাটা ও শিক্ষার্থীদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বাড়াদী ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ জহুরুল ইসলাম ও ছাত্র নেতা রাশেদুজ্জামান সেলিমের সার্বিক তত্ত্বাবধানে সন্ধায় বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়। এ সময় র‌্যালি ও স্লোগান মাধ্যামে গ্রামের রাস্তা প্রদিক্ষণ করে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম আবেদ আলী শামিম।

আসমানখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আসমানখালী মাধ্যামিক বিদ্যালয়ে র‌্যালি শেষে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য  রকিবুল হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিচালনা কমিটির সদস্য এমদাদুল হক ওদুদ প্রমুখ।

দামুড়হুদা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগরের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালি উপজেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সকাল ১০টায় দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ চত্বরের মুক্তমঞ্চে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রফিকুল হাসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর। নাজির হামিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সৈয়দা নাফিস সুলতানা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান এসএএম জাকারিয়া আলম, দর্শনা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ডার আছিন উদ্দীন, দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, যুদ্ধকালিন কমাণ্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, জেলা পরিষদের সদস্য উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক শফিউল কবির ইউসুফ, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ, দামুড়হুদা আব্দুল ওদুদ শাহ ডিগ্রি কলেজের প্রিন্সিপাল কামাল উদ্দীন, কার্পাসডাঙ্গা কলেজের প্রিন্সিপাল হামিদুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি অফিসার সুফি মো. রফিকুজ্জামান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বিকাশ কুমর সাহা, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাকী সালাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রবিউল হোসেন, যুগ্মসম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ভুট্টু,  অ্যাড. রফিকুল আলম রান্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। আলোচনা শেষে জেএসসি এবং জেডিসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদানসহ রচনা, চিত্রাঙ্কন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি এমপি আলী আজগার টগর।

এছাড়া কর্মসূচির অংশ হিসেবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভর সভাপতিত্বে আলোচনাসভা এবং উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে ফ্রি ব্লাড গ্রুপ চেকিং ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট মো. হা-মীম হাসান জোয়ার্দ্দার।

এ দিকে গতকাল বিকেলে দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ডে যুবলীগ নেতা অ্যাড. আবু তালেবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মনজু। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, আজিজুল হক আজিজ চেয়ারম্যান, দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আমির হোসেন, আ.লীগ নেতা আফজালুর রহমান বুলু, জান মোহাম্মদ সেলিম, সাব্বির হোসেন মিকা, যুবলীগ নেতা মিরাজুল ইসলাম মিরাজ, হযরত আলী, জাহিদুল মেম্বার, আশাদুল ইসলাম, ফয়সাল, দামুড়হুদা কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক শাহীন মোল্লা প্রমুখ। আলোচনা শেষে কেক কাটা হয়। সভা পরিচালনা করেন দামুড়হুদা কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্মআহ্বায়ক এমএ করিম।

এছাড়া গতকাল সকালে ইসলামিক ফাউন্ডেমনের উদ্যোগে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা সুপার ভাইজার আব্দুল হাকিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কার্পাসডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ভুট্টু। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি হাজি মাও. শফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মডেল কেয়ার টেকার আসাদুজ্জামান।

কুড়ুলগাছি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, কুড়ুলগাছিতে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও শিশু দিবস উপলক্ষে ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে  আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক  হাসমত আলী, কুড়ুলগাছি যুবলীগের আহ্বায় বিপু, রিপন, কুড়ুলগাছি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহম্মদ, যুগ্ম-সম্পাদক   মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল হক, জিয়া, সাজ্জাদ, জাহিদ, সামাদুল, খাইরুল প্রমুখ। আলোচনা শেষে ছাত্রলীগের উদ্যোগে একটি র‌্যালি বাহির হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মুকুল।

ভ্রাম্যমাণ সংবাদদাতা জানিয়েছেন, কার্পাসডাঙ্গায় এ উপলক্ষে  ইউনিয়ন ছাত্রলীগ দলীয় কার্যালয়ে আলোচনাসভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুজ্জামান রানা, সাবেক সভাপতি মোস্তাফিজ কচি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল বিশ্বাস মিঠু, সাধারণ সম্পাদক সানাউল কবির শিরিন প্রমুখ।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, জীবননগরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও শিশু দিবস পৃথক পৃথকভাবে পালিত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন এবং আওয়ামী লীগের দুটি গ্রুপের পক্ষ থেকে দিবসটি পালন করা হয়।

সকালে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেলিম রেজার সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে একটি র‌্যালিবের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা চত্বরে এসে শেষ হয়। বিভিন্ন স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে একটি চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। চিত্রাংকন অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলেদেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, থানার অফিসার ইনচার্জ এনামুল হক।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজার সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন মিলাদ-মাহফিল ও কেক কাটার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে হুইপ সোলায়মান হক জোর্য়াদ্দার ছেলুন গ্রুপের উদ্যোগে বিকেলে ইসলামী ব্যাংক মার্কেট চত্বরে আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে কেক কাটা ও আলোচান সভার মধ্যদিয়ে দিনটি পালন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জীবননগর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুন্সী নাসির উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা খলিলুর রহমান, আবুল বাশার, শামীম ফেরদৌস, কাজী শামসুল রহমান চঞ্চল, প্রজন্ম লীগের বিল্লাল হোসেন প্রমুখ। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মিলাদ-মাফিল ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন কনসালটেন্ট সার্জারি ডা. রফিকুল ইসলাম মিল্টন ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. মামুদা খাতুন। মানোহরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন যুবলীগ নেতা আকিমুল ইসলাম। হাসাদাহ মডেল ফাজিল মাদরাসার উদ্যোগে আয়োজিত মিলাদ-মাহফিল ও আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন মাদরাসা অধ্যক্ষ মাও. মো. আক্তারুজ্জামান। ইসলামী ফাউন্ডেশ কর্তৃক পরিচালিত হাসাদাহ প্রাক-প্রাথমিক পাঠাগারের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য যুবলীগ নেতা শফিকুল আলম নান্নু।

এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে ৩০ পাউন্ডের বিশাল কেক কেটে জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করেছে জীবননগর উপজেলার উথলী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এ কেক কাটা হয়। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর অনুষ্ঠনের প্রধান অতিথি হিসেবে এ কেক কাটেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তূজা, উথলী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, উথলী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সালাউদ্দীন কাজল, পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দ এবং শিক্ষকবৃন্দ। সকাল ৯টায় বঙ্গবন্ধুর জীবনীর ওপর আলোচনাসভা এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে মেহেরপুরে পালিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৯৮তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস। সকালে শহীদ ড. শামসুজ্জোহা পার্ক থেকে মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে একটি বিশাল র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন ও জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ। এরপর পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, জেলা পরিষদের পক্ষে চেয়ারম্যান ও সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ গোলাম রসুল, জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সহসভাপতি আব্দুল হালিম, আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক। পরে বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠা পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। একই স্থানে জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা ও শিশু সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন মেহেরপুর-১ সংসদ সদস্য অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ গোলাম রসুল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক প্রমুখ। এরপর জেলা বিএমএ’র সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন চত্বরে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করা হয়। জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে প্রথম রক্তদান করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ খালেক।

এদিকে এর আগে সকাল ৯টায় জেলা শিশু একাডেমিতে জেলা পর্যায়ে শিশুদের চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা এবং কবিতা আবৃত্তি, সঙ্গীতসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

এদিকে এদিন বিকেল সাড়ে ৪টায় জেলা কৃষকলীগের উদ্যোগে সদর থানা কৃষকলীগের কার্যালয় চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। জেলা কৃষক লীগের সভাপতি মাহাবুব আলম শান্তি ও সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম সাজ্জাদ লিখনের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে জেলা কৃষক লীগের সভাপতি মাহাবুব আলম শান্তির সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম সাজ্জাদ লিখনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সদর থানা কৃষকলীগের সভাপতি জাফর ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক শরিফউদ্দিন নিকুল, কৃষকলীগ নেতা রাজিব প্রমুখ। আলোচনাসভা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়।

গাংনী প্রতিনিধি  জানিয়েছেন, গাংনীতে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, র‌্যালি, আলোচনাসভা ও চিত্রাঙ্কণ এবং রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। সকালে উপজেলা পরিষদ শহীদ মিনারে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) এসএম জামাল আহমেদ। পরে গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মুনতাজ আলী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল আলম, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শফি কামাল পলাশ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মজিরুল ইসলাম, পৌর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক রাহিবুল ইসলাম, গাংনী প্রেসক্লাব সভাপতি রমজান আলীসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে সন্ধ্যায় মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মকবুল হোসেনের বাস ভবনে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর জীবনী তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন এমপি। উপস্থিত ছিলেন নেতৃবৃন্দ। এর আগে শহরে ‘জয়বাংলা’ স্লোগানে মিছিল করা হয়।

এদিকে ৩০৭ সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সেলিনা আখতার বানুর উদ্যোগে নিজ কার্যালয়ে পতাকা উত্তোলন, কেক কাটা, আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলের মধ্যদিয়ে পালিত হয় স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী। পরে শিশু-কিশোরদের মাঝে মিষ্টি ও বঙ্গবন্ধুর জীবনী সম্পর্কিত বই বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা মাসুদ পারভেজ, হাবিবুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদ হাসিব, জেলা ছাত্রলীগ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সজিব আহম্মেদ, ছাত্রবৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক সজল আলীসহ নেতৃবৃন্দ।

এদিকে সন্ধ্যায় পৌর আওয়ামী লীগের উগ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। পৌর আ.লীগের কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলাম বাবুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক।

এদিকে যুবলীগ নেতা আলাল উদ্দীন রিন্টুর উদ্যোগে বাস স্ট্যান্ড রেজাউল চত্বরে জন্মবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করা হয়।

মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মুজিবনগর উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদফতর মুজিবনগরের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে মুজিনগরে র‌্যালি এবং পুষ্পস্তাবক অর্পণ করা হয়েছে। সকালে মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার হেমায়েত উদ্দিনের নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুজিবনগর কমপ্লেক্সে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতির সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার হেমায়েত উদ্দিন, মুক্তিয়োদ্ধা কমান্ডার আবদুল জলিল, মুজিবনগর থানা ইনচার্জ (ওসি) কাজী কামাল হোসেন, বাগোয়ান ইউপি চেয়ারম্যান আয়ূব হোসেন, মোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, দারিয়াপুর ইউপি চেয়ারম্যান তৈফিকুল বারী বকুল, উপজেলা যুবলীগ, উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ, মোনাখালী ইউপি যুবলীগের আহবায়ক আব্দুল খালেক, যুগ্মআহ্বায়ক দেলোয়ার। এর পর একে একে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পাস্তবক অর্পণ করেন। সকাল ১০টার দিকে মুজিবনগর উপজেলা হল রুমে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

ঝিনাইদহ জানিয়েছেন, এদিন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সংসদ সদস্য আব্দুল হাই, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টুসহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বক্তব্য রাখেন।

সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহরের পুরাতন ডিসিকোর্ট চত্বর থেকে শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে পুরাতন ডিসি কোর্ট মুক্তমঞ্চে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মাহবুব আলম তালুকদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শৈলকুপা আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল হাই। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক আবু ইউসুফ রেজাউর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুর রউফ মণ্ডল, অতিরিক্ত সুপার আজবাহার আলী শেখ, ডা. কানিজ হোসেন জাহান, জেলা পরিষদের সচিব রেজাই রাফিন সরকার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আছাদুজ্জামান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক শাহ মোহাম্মদ আকরামুল হক, সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানা। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন এনডিসি মিজাবে রহমত ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুরনাহার বেগম। এছাড়াও দিনব্যাপী বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *