ছোট ভাইয়ের ভাড়াটে গুণ্ডাদের তাণ্ডবে ক্ষতবিক্ষত বড় ভাই

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা মাঝেরপাড়ার ইকলাস ওরফে সাহিতকে (৪৫) ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে। গতরাত ৯টার দিকে তার বাড়ির অদূরবর্তী শেকড়াতলা মোড়ে তাকে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করা হয়।

নৃশংস হামলার শিকার ইকলাস ওরফে সাহিত অভিযোগ করে বলেছেন, দোকান ছাড়তে বলায় ছোট ভাই জাহিদ ভাড়াটে গুন্ডা শোভন, ইভন, লতিফদের দিয়ে আমাকে খুনের উদ্দেশে এলোপাতাড়ি কুপিয়েছে। অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছি।

চুয়াডাঙ্গা মাঝেরপাড়ার আহাদুল ইসলামের ছেলে ইকলাস ওরফে সাহিতকে প্রথমে সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তাকে রেফার করা হলে নিকজনেরা ঢাকার উদ্দেশে নিয়েছেন তাকে। তিনি ও তার শয্যাপাশে থাকা লোকজন ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা বড়বাজার পুরাতনগলির মধ্যে ইসলাম ট্রেডার্স নামের সুতোর দোকান রয়েছে। দোকানটি দীর্ঘদিন ধরে পিতা আহাদুল ইসলামই পরিচালনা করতেন। দু ভাই ইকলাস ও  জাহিদ সহযোগিতা করতেন। বছর দু আগে দু বছরের জন্য দোকান পরিচালনার দায়িত্ব নেন জাহিদ। দু বছরের সময়সীমা পেরিয়ে গেলে বড়ভাই ইকলাস ও তার পিতা দোকানের হিসেব বুঝিয়ে ছেড়ে দিতে বলেন। ছোটভাই জাহিদ দোকান ফেরত দিতে অস্বীকৃতি জানান। ফলে দোকানমালিক সমিতির নিকট নালিশ করা হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে জাহিদ ভাড়াটে লোকজন দিয়ে শেখরাতলা মোড়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।

প্রত্যক্ষদর্শী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, একের পর এক ধারালো অস্ত্রের কোপ হাত দিয়ে ঠেকাচ্ছিলো ইখলাস। এ কারণে দু হাত ক্ষতবিক্ষত হয়েছে। এর মধ্যে পালানোর চেষ্টা করে। হামলাকারীরা পেছনে কোপ মারে। পিঠে ও পায় কোপ লাগে। হামলাকারীদের হামলার হিংস্রতা এতোটাই ভয়াবহ হয়ে ওঠে যে, আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ে পুরো শেকড়াতলা মোড়।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *