চেয়ারম্যান পদে আ.লীগ-১ জামায়াত-১ এবং বিএনপির ৭ প্রার্থী মাঠে

দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যানে ৯ এবং ভাইস চেয়ারম্যানে ৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

 

বখতিয়ার হোসেন বকুল: দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৯, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিনে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির ৭ প্রার্থী এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে জামায়াতের ১, বিএনপির ২ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানে আ.লীগ ও বিএনপি থেকে একজন করে প্রার্থী তাদের নিজ নিজ পক্ষের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলে এ মনোনয়নপত্র দাখিলের কার্যক্রম।

চেয়ারম্যান পদে যে ৯ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন তারা হলেন- আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদ, জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি হাউলী ইউপি চেয়ারম্যান মাও. আজিজুর রহমান এবং বিএনপি থেকে দামুড়হুদা উপজেলা বিএনপি সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী শাহ, জেলা বিএনপি সহসভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, উপজেলা বিএনপি একাংশের সভাপতি খাজা আবুল হাসনাত, উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল হাসান তনু, বিএনপি নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রব, জেলা যুবদল নেতা খালিদ মাহমুদ মিল্টন ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রনেতা এজাজুল হক মেরাজ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী দামুড়হুদা ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী দর্শনা পৌর জামায়াতের আমির আব্দুল কাদের, বিএনপি নেতা রবিউল হোসেন শুকলাল, যুবদল নেতা হাবিবুর রহমান বুলেট ও আবুল হাশেম এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী রওশন আকবর লাইলী ও বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী ছালমা জাহান পারুল মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপির একাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করায় বিএনপির তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মাঝে হতাশার ছাপ লক্ষ্য করা গেলেও আওয়ামী লীগ ও জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা রয়েছেন অনেকটাই খোশ মেজাজে।

কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণ পরিবেশের মধ্যদিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিলের কার্যক্রম শেষ হওয়ায় সকল প্রার্থীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন সহকারী রিটার্নিং অফিসার দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ফরিদুর রহমান। তিনি আরও  জানান, আগামী ১৫ মার্চ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সে লক্ষ্যে আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই, ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রত্যাহার এবং ২৫ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টার দিকে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের দিন ধার্য করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন থেকে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদের জন্য ৩০টি প্রতীক নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের জন্য আনারস, কাপ-পিরিচ, চিংড়ি মাছ, মোটরসাইকেল, ঘোড়া, টেলিফোন, দোয়াত-কলম, ব্যাটারী, হেলিকপ্টার ও ফেজটুপি, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের জন্য চশমা, টাইপ রাইটার, তালা, টিউবয়েল, মাইক, উড়োজাহাজ, টিয়াপাখি, জাহাজ, বই ও বৈদ্যুতিক বাল্ব এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের জন্য প্রজাপতি, হাঁস, ফুটবল, ক্যামেরা, কলস, পদ্মফুল, ফুলের টব, বৈদ্যুতিক পাখা, তীর-ধনুক ও সেলাইমেশিন বরাদ্দ রয়েছে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নাজির হামিদুল ইসলাম।

অপরদিকে দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, মনোয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে বিএনপি নেতা-কর্মীদের মাঝে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। দামুড়হুদা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়া কর্মীরা ইট পাটকেল নিক্ষেপ করেছে। এ অফিস কার্যালয়ে অবস্থান করা মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ফজলুর রহমানকে উদ্দেশ্য করে গালাগালি করা হয়েছে। চৌরাস্তামোড় সংলগ্ন মাসুদ মেডিকেল হলে অবস্থান করা অপর মনোনয়নপত্র দাখিলকারী লিয়াকত আলী শাহকেও গালিগালাজ করা হয়েছে। রফিকুল হাসান তনু সমর্থিতদের দাবি মাঠে থাকা দলীয় নেতাকে এ নির্বাচনে এককভাবে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করা।

জানা গেছে, গতকাল শনিবার রফিকুল হাসান তনু সর্বশেষ মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিনে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির ৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান ৩ জন আর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। আওয়ামী লীগ ও জামায়াতে ইসলামী তাদের একক প্রার্থী দিলেও বিএনপি প্রার্থীরা নিজেদের মধ্যে সমঝোতা না করতে পারায় কেন্দ্রীয় নির্দেশ অমান্য করে নিজ নিজ মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। বিএনপির একাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করায় মাঠ পর্যায়ের নেতাদের দামুড়হুদা নির্বাচন অফিসে দেখা যায়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *