চুয়াডাঙ্গা-৬ বর্ডার গার্ডের হাবিলদার জিল্লুর রহমান স্বেচ্ছায় অবসর নিলেন ২৬ বছরের চাকরি জীবন ছেড়ে ফিরছেন বাড়ি

দর্শনা অফিস: চুয়াডাঙ্গাসহ আশপাশ এলাকাকে মাদকমুক্ত করার লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা-৬ বর্ডার গার্ডের কর্মকর্তাদের নির্দেশ মোতাবেক বিজিবি সদস্যরা সোচ্চার। এদের মধ্যে হাবিলদার জিল্লুর রহমান মাদকবিরোধী সফল অভিযানে এলাকার সচেতনমহলের দৃষ্টি কেড়েছেন। পেয়েছেন সাধুবাদ। ২৬ বছরের চাকরি জীবনের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে তিনি স্বেচ্ছায় অবসর নিলেন। গত বছরের ২৩ মার্চ দর্শনা বিজিবি ক্যাম্পে যোগদান করেন হাবিলদার জিল্লুর রহমান। দর্শনাসহ আশপাশ এলাকা মাদকমুক্ত করার লক্ষ্যে সেদিন থেকেই তিনি শুরু করেন মাদকবিরোধী চিরুনি অভিযান। অল্প দিনেই মাদককারবারী ও মাদকাসক্তদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। এ ক্যাম্পে দায়িত্ব পালনকালেই গত ৭ জুলাই তিনি স্বেচ্ছায় অবসর গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগে আবেদন করেন। এরপর হাবিলদার জিল্লুর রহমান মুন্সিপুর ও উথলী বিশেষ ক্যাম্পে দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৮৮ সালে ৭ জুলাই সৈনিক পদে তৎকালীন বিডিআরে যোগদান করেন গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার হরিদাসপুরের জলফু মোল্লার ছেলে জিল্লুর রহমান। কর্মদক্ষতার কারণে ২০০৪ সালে ল্যান্সনায়েক পদোন্নতি লাভ করেন। ২০০৮ সালে নায়েক হিসেবে পদোন্নতির পর ২০১১ সালে হাবিলদার পদে পদোন্নতি হন। গত ২৮ জানুয়ারি হাবিলদার জিল্লুর রহমান স্বেচ্ছায় অবসর গ্রহণের চিঠি হাতে পান। এরই মধ্যে ৬ বর্ডার গার্ডের যে যে এলাকায় দায়িত্ব পালন করেছেন সকল স্থান থেকেই তাকে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ব্যাটালিয়ন থেকে তাকে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়। আজ বুধবার সকালে তিনি চুয়াডাঙ্গা ত্যাগ করবেন বলে জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *