চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের স্বতন্ত্রপ্রার্থী মতিয়ারের প্রার্থিতা বহাল

 

দর্শনা অফিস: জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে প্রার্থিতার বৈধতা পেলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মতিয়ার রহমান। প্রার্থিতা বাতিলের পরপরই মতিয়ার রহমান প্রার্থিতা বৈধ চ্যালেঞ্জ করে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন। পুনরায় যাচাই-বাছাইয়ের ৫ দিনের মাথায় তার প্রার্থিতা বৈধতার ঘোষণা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। মতিয়ার রহমান ও তার নিকটজনেরা এ তথ্য সেলফোন তথা মোবাইলফোনে জানিয়েছেন।

নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী গত ৫ ডিসেম্বর ছিলো প্রার্থীদের যাচাই-বাছাইয়ের নির্ধারিত দিন। ওই দিন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী দর্শনা পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমানের প্রার্থিতা বাতিল করা হয় চুয়াডাঙ্গা নির্বাচন কমিশন থেকে। কারণ হিসেবে বলা হয় স্বতন্ত্র প্রার্থীর ক্ষেত্রে নির্বাচনী এলাকার ভোটারের শতকরা একভাগ ভোটারের স্বাক্ষর নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া হয়। মতিয়ার রহমান কর্তৃক ভোটারদের সাক্ষরকৃত তালিকার মধ্যে ১০ জন ভোটারের ওপর নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে জরিপ করে ছয়জনের স্বাক্ষর সঠিক নয় বলে জানানো হয়। এর প্রেক্ষিতেই মতিয়ার রহমানের প্রার্থিতা বাতিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন থেকে। মতিয়ার রহমান তার প্রার্থিতা বৈধ দাবি করে ৬ জনের স্বাক্ষর সঠিক দাবি তুলে চ্যালেঞ্জ করেন। পরদিন ওই ছয়জনকে সশরীরে নেয়া হয় ঢাকা আগারগাও প্রধান নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে। এভিটেভিটের মাধ্যমে ওই ৬ জনের স্বাক্ষর জমা দেয়া নির্বাচন কমিশনে। গতকাল ১০ ডিসেম্বর পুনরায় যাচাই-বাছাই শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশন থেকে মতিয়ার রহমানের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। মতিয়ার রহমান জানান, তিনি নির্বাচনী এলাকায় ফিরে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সাথে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নামবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.