চুয়াডাঙ্গা হাসপাতালের আরএমওকে ছুরিকাঘাতের অপচেষ্টা

 

আকবর ও কামরুলের বিরুদ্ধে থানায় মামলা : গ্রেফতারে বিলম্ব হলেই আন্দোলনের পূর্বাভাস

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত অবস্থায় হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাসুদ রানাকে ছুরিকাঘাতে খুনের অপচেষ্টা চালানো হয়েছে। দু যুবক গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জরুরি বিভাগে প্রবেশ করে ডা. সাঈদুর রহমান শামীমের অবস্থান জানতে চাওয়ার পর ধারালো অস্ত্র বের করে আরএমওকে খুনের অপচেষ্টা চালায়। এ মর্মে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি এজাহার দাখিল করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. মাসুদ রানা বাদী হয়ে মুক্তিপাড়ার শাহাদত হোসেনের ছেলে আকবর আলী ও ঈদগাপাড়ার খবির উদ্দীনের ছেলে কামরুলকে আসামি করেছেন। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আসামিদের ধরতে পারেনি পুলিশ। চিকিৎসকদের একসূত্র বলেছে, আসামি গ্রেফতারে বিলম্ব হলে চিকিৎসকেরা আন্দোলন কর্মসূচি হাতে নিতে পারেন।

সূত্র বলেছে, আকবরসহ দুজন গতপরশু রাতে আহত অবস্থায় হাসপাতালে যায়। ওই রাতে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত ছিলেন ডা. সাঈদুর রহমান শামীম। গতকাল বিকেলে আকবর ও কামরুল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে হাজির হয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক আরওমওর নিকট ডা. শামীমের অবস্থান জানতে চায়। আরএমও জানান, তিনি রাতে দায়িত্ব পালন করেছেন। দিনে বাড়িতে আছেন। সেখানে কি তিনি ঘুমাচ্ছেন? বলে যুবকদয় প্রশ্ন তুললে আরএমও বলেন, কী করে বলবো তিনি এখন কী করছেন? এতেই ক্ষুব্ধ হয়ে দু যুবক ধারালো অস্ত্র ডেগার বের করে আরওমওকে মারতে যায়। সেখানে থাকা অন্যরা ঠেকায়। পরে দু যুবক সটকে পড়ে।

Leave a comment

Your email address will not be published.