চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসকের নিকট রোগী ও টিকিট ছড়াই ওষুধ লেখার দাবি

 

অন্যায় আবদার সাড়া না দেয়ায় চিকিৎসককে মেরেই দৌঁড়

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে দৌড়ে সটকে পড়েছে কলোনিপাড়ার মান্না। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মান্না জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসকের নিকট চিরকুট ধরিয়ে দিয়ে ফ্লকসিন নামক ট্যাবলেট লিখে দিতে বলে। চিকিৎসক হাসপাতালের টিকেট নিয়ে রোগী আনার কথা বলতেই মান্না ক্ষুব্ধ হয়ে চিকিৎসকের পেছন থেকে আঘাত করে সটকে পড়ে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সাইদুর রহমানকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার দৃশ্য দেখে উপস্থিত অনেকেই হতবাক হয়ে পড়েন। পরে সিভিল সার্জনের নিকট লিখিতভাবে বিষয়টি জানানো হয়। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পার্যন্ত সিভিল সার্জনের পক্ষে আইনগত কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে কি-না তা নিশ্চিত করে জানা সম্ভব হয়নি।

স্থানীয়দের বেশ কয়েজন বলেছেন, কলোনিপাড়ার বাবর আলীর ছেলে মান্না মাঝে মাঝেই হাসপাতালে রোগী আনে। রোগীদের সহযোগিতা করতে দেখা যায়। ওষুধ লিখিয়ে নেয় বলেও অভিযোগ ওঠে। সে গতকাল কেন এবং কার জন্য ওষুধ লিখিয়ে নিচ্ছিলো তা নিশ্চিত করে জানা সম্ভব হয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *