চুয়াডাঙ্গা শহরের সড়কের দুপাশে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা অপসারণের নির্দেশ দিলেন জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়কের পাশে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা মাঝে মাঝেই অপসারণ করে জেলা প্রশাসন। কিন্তু কিছুদিন পর পুনরায় আগের চিত্রই দেখা যায়। তবে এবারের কথা ভিন্ন। চুয়াডাঙ্গা জেলার সার্বিক উন্নয়নে ৩ বছর মেয়াদি কর্ম পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে জেলা প্রশাসন। ওই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ। জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বিভিন্ন কর্মসূচি গৃহীত হয়। জনস্বার্থে কর্মসূচিগুলো ইতোমধ্যে স্থানীয় পত্রিকাগুলোতে প্রকাশ করে জেলা প্রশাসন। তারই ফলাফল দেখতে গতকাল মঙ্গলবার জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শোক দিবসের কর্মসূচি শেষে ফেরার পথে বড়বাজার পর্যন্ত পায়ে হেঁটে দোকানে দোকানে গিয়ে এর বাইরে রাখা মালামালসহ সড়কের পাশে গড়ে তোলা সব ধরনের অবৈধ স্থাপনার মালিকদের তা অপসারণ করতে নির্দেশ দেন জেলা প্রশাসক। এ সময় তিনি অবৈধ স্থাপনার মালিকদের সতর্ক করে বলেন, দোকানের সামনে সড়কের ওপর মালামাল রাখা যাবে না। সড়কের দু পাশে গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা দ্রুত অপসারণ করতে হবে। এর ব্যতিক্রম হলে পরবর্তীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক আনজুমান আরা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৃণাল কান্তি দে, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর সুচিত্র রঞ্জন দাসসহ জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। এদিকে অবৈধ স্থাপনা অপসারণে সকলকে একই নজরে দেখার দাবি জানিয়েছেন সড়কের দু পাশের ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে শহরের সচেতন অনেকেই বলেছেন, সড়কের দু ধার থেকে মাঝে মাঝেই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে জেলা প্রশাসন। পরবর্তীতে আবারও অসাধু ব্যক্তিরা অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে থাকেন। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ার কারণে এমনটি হয়ে থাকে বলে তারা মনে করছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *