চুয়াডাঙ্গা শহরের নিচের বাজারে অস্বাস্থ্যকর স্থানে খাবার গুড়

 

 

দু গুড়ব্যবসায়ীর জরিমানা ভ্রাম্যমাণ আদালতের

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা নিচের বাজারে গুড়ের আড়তে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় দুটি আড়ত মালিককে ৮ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ায়ে এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে জরিমানার টাকা প্রদান করায় দারা সাজা থেকে রেহাই পান। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবারগুড় রাখার অপরাধে তাদের বিরুদ্ধে এ আদেশ দেয়া হয়।

সূত্র জানায়, চুয়াডাঙ্গা বড়বাজারস্থ নিচের বাজারের গুড়ব্যবসায়ী পরেশ চন্দ্র সাহা ও গনেশ ঘোষের গুড়ের আড়তে গতকাল মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা খানম ও সরকার অসীম কুমারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত গুড়ের আড়তে প্রবেশ করেন। প্রথমে পরেশ চন্দ্র সাহার গুড়ের আড়তে যান তারা। সেখানে অস্বাস্থ্যকর ও স্যাঁতসেতে স্থানে টিনভর্তি খাবার গুড় রাখার অপরাধে তাকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ড দেন। পরে গনেশ ঘোষের আড়তে গিয়ে দেখা যায় একই পরিবেশে গুড়ের টিন রাখা। পাশাপাশি আড়তের ভেতরে তিনি বিদেশি কবুতর পুষেছেন। এ কারণে গণেশ ঘোষকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা ও একইভাবে জরিমানা অনাদায়ে এক মাস কারাদণ্ডের আদেশ দেন। তবে দু ব্যবসায়ীই তাৎক্ষণিকভাবে জরিমানার টাকা পরিশোধ করায় তারা সাজা থেকে অব্যাহতি পান।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার প্রসিকিউটর ছিলেন সেনেটারি ইন্সপেক্টর মো. জামাত আলী, চুয়াডাঙ্গা সদর থানার সেকেন্ড অফিসার খলিলুর রহমান, এএসআই তিলাম হোসেন ও বেঞ্চ সহকারী নাজমুল হক।

Leave a comment

Your email address will not be published.