চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর রোডে আজ থেকে লাগাতার পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কে সরাসরি বাস চলাচল ৪ দিন ধরে বন্ধ রয়েছে। এতে দুই জেলায় চলাচলকারী যাত্রী সাধারণ চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। মেহেরপুর বাস মিনিবাস মালিক সমিতি অতিরিক্ত চাঁদা চাওয়ার কারণে গত ৬ জুন থেকে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এ পরিস্থিতির সমাধান না হলে মালিক সমিতি ও শ্রমিকরা শুক্রবার থেকে মেহেরপুরের সব ধরনের বাস-মিনিবাস চুয়াডাঙ্গায় আটকে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার এ ঘোষণা দেয়। দুপুরে  জেলা শহরের আলি হোসেন সুপার মার্কেটের নিজস্ব কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপের সিনিয়র সহসভাপতি আবদুল হালিম লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন, ‘চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কে চুয়াডাঙ্গা মালিক সমিতির ২৮টি বাস চলাচল করে। গত ৬ জুন থেকে মেহেরপুর মালিক সমিতি চুয়াডাঙ্গার প্রতিটি বাসের ট্রিপ প্রতি অতিরিক্ত ৬০ টাকা করে চাঁদা দাবি করে। অতিরিক্ত টাকা না দেয়ায় ওই দিন চুয়াডাঙ্গার সকল বাস যাত্রীশূন্য অবস্থায় মেহেরপুর থেকে চুয়াডাঙ্গায় পাঠিয়ে দেন তারা। এরপর থেকে যাত্রীবাহী বাসগুলো দুই জেলার সীমানা দরবেশপুর পর্যন্ত চলাচল করছিলো। ফলে যাত্রীরা চরম দুর্ভোগের শিকার হতে থাকেন।

চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপের সময় নিয়ন্ত্রক বিদ্যুত হোসেন জানান, মেহেরপুর বাসমিনিবাস মালিক সমিতির দাবিকৃত অতিরিক্ত টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ক্ষুব্ধ মেহেরপুর বাস মালিক সমিতির নেতাকর্মীদের মারধর করে এবং যাত্রী ছাড়াই বাসগুলো চুয়াডাঙ্গাতে ফেরত পাঠায়।

এ অবস্থায় বৃহস্পতিবারের সংবাদ সম্মেলনে আল্টিমেটাম দিলো চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস-মিনিবাস মালিক গ্রুপ। তারা বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার মধ্যে সমঝোতা না হলে শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে চুয়াডাঙ্গা জেলার ওপর দিয়ে চলাচলকারী মেহেরপুর বাস মালিক সমিতির সকল দূরপাল্লা ও আভ্যন্তরীণ রুটের বাস অবরোধের মাধ্যমে বন্ধ করে দেয়া হবে।

এ ব্যাপারে মেহেরপুর জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ গোলাম রসুল বলেন, আগে থেকেই চুয়াডাঙ্গার বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপ মেহেরপুর পরিবহন মালিকদের কাছ থেকে গাড়িপ্রতি প্রতিদিন ৬০ টাকা করে নিয়ে থাকেন। একইভাবে আমরাও চুয়াডাঙ্গার গাড়িপ্রতি ৬০ টাকা দাবি করি। এটা মোটেও অন্যায় নয়।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত গতকাল এ বিষয়ে দু পক্ষ সমঝোতায় পৌছুতে পারেনি। ফলে আলটিমেটাম অনুযায়ী আজ শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে মেহেরপুরের সব ধরনের বাস চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে যাওয়া আসা বন্ধ করে দেয়া হবে। একই সাথে তারা ধর্মঘটেরও ডাক দেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *