চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরে হতদরিদ্র মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে শীতবস্ত্র বিতরণ : উত্তরবঙ্গে ঘন কুয়াশা

স্টাফ রিপোর্টার: ঘন কুয়াশার চাদরে মুড়ে রয়েছে দেশের উত্তরাঞ্চল। শীতও জেকে বসেছে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে। চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরসহ পাশ্ববর্তী এলাকায় তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বাড়লেও মৃদু শৈত্যপ্রবাহের পুর্বাভাস রয়েছে। এদিকে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরে হতদরিদ্র মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত রয়েছ। গতকাল চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজ হাতে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সংগঠন ও ব্যক্তি উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
গতকাল রোববার দেশের সর্বনি¤œ তাপমাত্রা ছিলো রাজারহাটে ৮ দশমিক ২ ও সর্বোচ্চ ছিলো সীতাকু-ে ২৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চুয়াডাঙ্গায় গতকাল সর্বোচ্চ ২৫ দশমিক শূন্য ও সর্বনি¤œ ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগড়ব এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মরসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। ফরিদপুর, ময়মনসিংহ ও বরিশাল অঞ্চলসহ রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা রাতের তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে।
চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের উদ্যোগে শীতার্ত অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় রেলস্টেশনের রেল শ্রমিকদের মাঝে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) নুরজাহান খানম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কম্বল বিতরণ করেন। এ সময় জেলা পরিষদের সদস্য শহিদুল ইসলাম সাহান ও খলিলুর রহমান, জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী সামাদুল ইসলাম ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা রমজান আলী উপস্থিত ছিলেন। চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে শ্রমিক সর্দ্দার আকতার হোসেন, শুকুর আলী, আছের আলী, আব্দুল হালিম, মো. বাবু, জুলমত আলী, জয়নাল হোসেন, মহিদুল ইসলাম, আনছার আলী ও ফরজ আলী কম্বল গ্রহণ করেন। জেলা পরিষদের দেয়া কম্বল পেয়ে শীতার্ত এসব মানুষ জেলা পরিষদের কর্মকর্তাদের প্রতি ধন্যবাদ জানান ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
এদিকে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ রেডক্রিসেন্ট যুব ইউনিটের উদ্যোগে শীতার্ত অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. কামরুজ্জামান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। এসময় চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল মজিদ প্রামানিক, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শফিকুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান ও যুব রেডক্রিসেন্ট শিক্ষক জাহিদুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ যুব রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের পক্ষে যুব প্রধান বিপ্লব হোসেন, ইউনিট সদস্য আবু বকর ও রাজু আহমেদ, জেলা কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, শাফিউল ইসলাম শিপলু ও সাবেক যুব প্রধান উবাইদুল ইসলাম তুহিন উপস্থিত ছিলেন। এ সময় শতাধিক শীতার্ত অসহায় নারী ও পুরুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। চুয়াডাঙ্গার শহরতলীর দৌলাতদিয়াড় গ্রামে বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘সহযোগ’র উদ্যোগে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার বিকেলে দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়ায় আজগর আলীর বাড়িতে এ কম্বল বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাধরণ সম্পাদক রাজীব হাসান কচি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে সরোজগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক গোলাম মোস্তফা ও আলুকদিয়া ইউপির সাবেক সদস্য আদিল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। কম্বল বিতরণের সার্বিক ব্যবস্থপনায় ছিলেন সহযোগ সংগঠনের পক্ষে অন্যতম সংগঠক গোলাম মোস্তফা গোলাম। এ সময় শতাধিক শীতার্ত অসহায় নারী ও পুরষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এছাড়া, ‘সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে’ স্লোগানে দ্য রোড রানার্স নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী গ্রুপ মধ্যরাতে শীতার্তদের জন্য কম্বল, শীতবস্ত্র ও খাবার নিয়ে পাশে দাঁড়ালেন। গত শনিবার মধ্যরাতে ঢাকার বিভিন্ন রাস্তার পাশে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান তারা। এ সময় দ্য রোড রানার্স গ্রুপের সদস্য প্রায় দু’শতাধিক কম্বল, শীতবস্ত্র ও খাবার বিতরণ করেন। উপস্থিত ছিলেন, দ্য রোড রানার্সের সদস্য মাহমুদ হাসান, শাহীন, তানভীর রায়হান, মাসুম, দ্বীন ইসলাম, মিঠু প্রমুখ। এ ব্যাপারে তরা বলেন, আমরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেড়ে আমরা আনন্দিত। আগামীতে আমরা আরও সেবা করতে করতে চাই। এজন্য সকলের দোয়া ও আর্শীবাদ কামনা করছি।
গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুর গাংনীর বেতবাড়িয়া গ্রামে দুস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছে ‘একটু পাশে দাঁড়ায়’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। গতকাল রোববার বিকেলে বেতবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে কম্বল বিতরণ করা হয়। ‘মানবতার জয় হোক, অসহায়ত্ব দূর হোক’ এই স্লোগানে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান সুমন। প্রধান অতিথি ছিলেন রেজাউল হক মাস্টার। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাংনী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক, বিশিষ্ট সমাজসেবক ওয়াসিম সাজ্জাদ লিখন, বেতবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা জামাত আলী, কাজিপুর ইউপি ৮নং ওয়ার্ড সদস্য সাইদুর রহমান, সাবেক ইউপি সদস্য আজগর আলী, বেতবাড়িয়া হাইস্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাসানুজ্জামান ও তরুণ সমাজসেবক নাজমুল হোসেন। সঞ্চালনায় ছিলেন আয়োজক সংগঠনের সদস্য ঈশা খাঁন অপুর্ব। অনুষ্ঠানে এলাকার দুস্থ দরিদ্রদের মাঝে দু’শতাধিক কম্বল প্রদান ও মুক্তিযোদ্ধা এবং সমাজসেবকদের ক্রেস্ট দিয়ে সংবর্ধনা দেয়া হয়।
মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুরের মুজিবনগরে শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছে রুরাল রিকনস্ট্রাকশন ফাউন্ডেশন মুজিবনগর শাখা। গতকাল রোববার দুপুর ১২টায় মুজিবনগর উপজেলার নিজ অফিস চত্বরে দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন রুরাল রিকনস্ট্রাকশন ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক গৌতম কুমার দাস। উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য মি. দিলিপ মল্লিক, জোনাল একাউন্টেন ইফতে খারুজ্জামান, অডিট অফিসার বলাই কৃষ্ণ দাস, মুসফিকুর রহমান, ইউনিট ম্যানেজার উজ্জ্বল কুমার সনজিব ঘোষ ও গৌরাঙ্গা দাস প্রমুখ।
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঝিনাইদহ শহরের কাঞ্চননগর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সংগঠন এক্স-কাঞ্চননগরিয়ান অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে অসহায় শীতার্তদের মধ্যে কম্বল বিতরণ করা হয়। গতকাল রোববার দুপুরে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শতাধিক শীতার্তদের মধ্যে কম্বল প্রদান করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাঞ্চননগর স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রদীপ কুমার বিশ^াস, এক্স-কাঞ্চননগরিয়ান অ্য্যাসোসিয়শেনের সভাপতি শাহীনূর আলম লিটন, সহসভাপতি সালাউদ্দিন গাউস গোর্কি, অর্থসম্পাদক মাজহারুল আনোয়ার সবুজ, ক্রীড়া সম্পাদক মোস্তফা মাসুদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাঈক আল যামি লিসন, সাহিত্য সম্পাদক আরেফিন অনু, সহ-সাহিত্য সম্পাদক কানিজ তন্বি ও নির্বাহী সদস্য রাহাদুজ্জামান। পরে শীতার্তদের হাতে কম্বল তুলে দেয়া হয়।
চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের বার্ষিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতি প্রতিযোগিতার উদ্বোধন
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের বার্ষিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতি প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। তিন দিনব্যাপী বার্ষিক সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ, প্রফেসর নওরোজ মোহাম্মদ সাঈদ। সভাপতিত্ব করেন সরকারি মহিলা কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাসুদ পারভেজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপাধ্যক্ষ ড. জাহাঙ্গীর আলম, ও শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মফিজুর রহমান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কলেজের শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা। প্রতিযোগিতার মধ্যে ছিলো কবিতা আবৃত্তি (বাংলা), কবিতা আবৃত্তি (ইংরেজি), একক অভিনয়, কৌতুক, ধারাবাহিক গল্প বলা, উপস্থিত বক্তৃতা ও সাধারণ জ্ঞান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *