চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৭ ফাইনাল আজ

স্বাগতিক চুয়াডাঙ্গা লড়বে সিরাজগঞ্জ জেলা ফুটবল দলের বিপক্ষে
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন ‘জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা সুন্দরভাবে উপভোগ করতে দর্শক ও ক্রীড়ানুরাগীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সহযোগিতা করতে হবে। চুয়াডাঙ্গা ও সিরাজগঞ্জ জেলা ফুটবল একাদশের মধ্যকার ফাইনাল খেলায় হাড্ডা-হাড্ডি লড়াই হবে। খেলায় হারজিৎ থাকবেই।’ গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেসব্রিফিঙে এডিসি আব্দুর রাজ্জাক এসব কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা সম্পর্কে আয়োজিত প্রেসব্রিফিঙে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার ফরহাদ আহমদ, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহ, জেলা তথ্য অফিসার আমিনুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার ফখরুল ইসলাম ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তোজাম্মেল হকসহ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
চুয়াডাঙ্গা জেলা স্টেডিয়ামে আজ শুক্রবার বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে স্বাগতিক চুয়াডাঙ্গা ও সিরাজগঞ্জ জেলা ফুটবল একাদশের মধ্যেকার জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টের-২০১৭ ফাইনাল খেলা। অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি প্রধান অতিথি ও চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।
প্রেসব্রিফিঙে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুর রাজ্জাক আরও বলেন ‘২৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য ফাইনাল খেলায় ১২ হাজার টিকিট ছাড়া হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কিভাবে জনগণের চাপ সামলাবেন সেজন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। টিকিটের চাহিদা রয়েছে ২৫ থেকে ৩০ হাজার। এপর্যন্ত পুলিশের নিরাপত্তা প্রশংসনীয়। সাথে রোভার স্কাউট ও আনসার সদস্য রয়েছে। এছাড়া, পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্স থাকবে। এবার ২ প্লাটুন বিজিবি সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে প্রস্তত থাকবেন। খেলায় বিজয়ী চ্যাম্পিয়ন দল নগদ এক লাখ টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি এবং রানার আপ দল নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ট্রফি পুরস্কার লাভ করবে। অংশগ্রণকারী খেলোয়াড়দের জন্য মেডেল, ব্যাগ ও টি পট থাকবে। রেফারিদের জন্য মেডেল পুরস্কার দেয়া হবে। ৬ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সম্মাননা দেয়া হবে। এরা হলেন, হায়দার আলী, রফাতুল্লাহ, মতিয়ার রহমান, আব্দুল মোমিন জোযার্দ্দার, মাহমুদুল হক লিটন ও মামুন জোয়ার্দ্দার। ফাইনালে সেরা খেলোয়াড়কে ১৭ ইঞ্চি এলইডি টিভি মিনিস্টার ফ্রিজের সৌজন্যে দেয়া হবে। চ্যাম্পিয়ন দলের প্রাইজমানি ও ট্রফি সাউথ ইস্ট ব্যাংক ও রানারআপ দলের প্রাইজমানি ও ট্রফি সময়ের সমীকরণের সৌজন্যে দেয়া হবে। খেলা শুরুর আগে ২-৪৫ মিনিটে ফুটবল খেলার থিম সংয়ের সাথে নৃত্য পরিবেশন করবে সরকারি শিশু পরিবারের সদস্যরা। টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় পুরস্কার মরহুম সিরাজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার স্মরণে একজন পাবেন। ফেয়ার প্লে পুরস্কার লাভ করবে রাজশাহী জেলা ফুটবল দল।’
এদিকে, টুর্নামেন্টের ফাইনালকে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গা জেলা দলের অধিনায়ক সোহেল বলেন, শিরোপা জেতার জন্য আজ মাঠে নামবো। তবে সিরাজগঞ্জ জেলা দলকে আমি ছোট করে দেখছি না। অনেক ভালো খেলে তারা ফাইনালে উঠেছে। আমি এবং আমার টিমের খেলোয়াড়রা যদি আমাদের সেরা খেলাটি উপহার দিতে পারি তাহলে নিশ্চয় আমরা শিরোপা জিতবো।
সিরাজগঞ্জ জেলাদলের অধিনায়ক স্বপন বলেন, শিরোপা জেতার জন্য নয়, ভালো খেলা উপহার দেয়ার জন্য মাঠে নামবে আমার দল। আর ভালো খেলতে পারলে শিরোপা আমরাই জিতবো। যদিও মাঠের দর্শক থাকবে স্বাগতিক চুয়াডাঙ্গার অনুকূলে।
জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৭’র সফল রূপদানকারী চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ জানান, টুর্নামেন্টের সফল রূপদানের জন্য সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে চুয়াডাঙ্গার ফুটবল প্রিয় দর্শকগণ। আমি নেপথ্যে থেকে শুধু কার্যক্রম পরিচালনা করেছি। আমি মনেকরি আমার নয় ফুটবলের জয় হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত ৬ অক্টোবর চুয়াডাঙ্গা জেলা স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বাধন করা হয়। দেশের ১৬টি জেলা ফুটবল দল টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে। গত ২২ অক্টোবর প্রথম সেমিফাইনালে স্বাগতিক চুয়াডাঙ্গা জেলা ফুটবল দল ২-১ গোলে ঝিনাইদহ জেলা ফুটবল দলকে এবং গত ২৩ অক্টোবর ২য় সেমিফাইনালে সিরাজগঞ্জ জেলা ফুটবল ৩-১ গোলে জয়পুরহাট জেলা ফুটবল দলকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *