চুয়াডাঙ্গা কলেজ ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হোসেন বিপ্লবকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় সরকারি কলেজের অদূরবর্তী পশু হাসপাতালের সামনে একদল যুবক কয়েকটি মোটরসাইকেলযোগে এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ মারে।
নাজমুল হোসেন বিপ্লব (২২) চুয়াডাঙ্গা আরামপাড়ার জাকির হোসেনের ছেলে। তাকে গতরাতেই ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালের উদ্দেশে নেয়া হয়েছে। তার এক হাতের একটি আঙ্গুল কেটে শরীর থেকে বিছিন্ন হওয়া অবস্থায় রয়েছে। এছাড়া অপর হাতেও গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে।
ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে আহত নাজমুল হোসেন বিপ্লব বলেছে, আমরা কয়েকজন কলেজ শহীদ মিনার থেকে পশু হাসপাতালের দিকে হাটছিলাম। ৫টি মোটরসাইকেলযোগে ৮/৯ জন আমাদের পাশ দিয়ে চলে যায়। কিছুক্ষণের মধ্যে ফিরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ মারতে থাকে। কোপ গুলো হাত দিয়ে ঠেকায়। হাত রক্তাক্ত জখম হয়ে পড়ে যাই। হামলাকারীদের মধ্যে রেজুয়ান, রিগ্যান ও সিয়ামের চিনতে পেরেছে বলে জানালেও কেনো হামলা চালানো হয়েছে সে বিষয়ে কিছুই বলতে পারেননি বিপ্লব।
তবে পুলিশ বলেছে, ছাত্রলীগের দু পক্ষের বিরোধের কারণে এ হামলা হয়ে থাকতে পারে। খবর পেয়ে গতরাতেই চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন হাসপাতালে নাজমুল হোসেন বিপ্লবকে দেখতে যান। জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শরীফ হোসেন দুদুসহ অনেকেই ছুটে যান হাসপাতালে। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানান। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মামলা হয়নি। এ ঘটনার সাথে জড়িত তেমন কাউকে পুলিশ গ্রেফতারও করেনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *