চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মিছিল ও সমাবেশে বক্তারা

আওয়ামী লীগ সরকার ধৈর্যের সকল সীমা লঙ্ঘন করেছে

 

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহে কালো পতাকা নিয়ে মিছিল করেছে। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের ওপর হামলার তীব্র সমালোচনা করে বর্তমান সরকারকেই দায়ী করেছে। বক্তারা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ধৈর্যের সকল সীমা লঙ্ঘন করেছে। দেশবাসী এই সরকারকে ক্ষমতায় দেখতে চায় না।

সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের ওপর বহিরাগতদের নগ্ন হামলার প্রতিবাদে চুয়াডাঙ্গায় আইনজীবীরা কালো পতাকা মিছিল ও সমাবেশ কর্মসূচি পালন করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০টায় জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম আইনজীবী সমিতি ভবন থেকে মিছিল বের হয়ে বড়বাজার শহীদ হাসান চত্বর ঘুরে আবার কোর্ট চত্বরে সমাবেশ করে। চুয়াডাঙ্গা জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আব্দুল ওহাব মল্লিক সমাবেশে বলেন, সুপ্রিম কোর্টে বহিরাগতরা এসে সিনিয়র আইনজীবী ও মহিলা আইনজীবীদের লাঞ্ছিত করেছেন। এর প্রতিবাদে সারাদেশের মতো চুয়াডাঙ্গা জেলাতেও আইনজীবীরা কালো পতাকা মিছিল কর্মসূচি পালন করছেন। এ সময় জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মুন্সি মো. শাহজাহান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক সাঈদ মাহমুদ শামীম রেজা ডালিম, ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, আসম আব্দুর রউফ, সৈয়দ হেদায়েত হোসেন আসলাম, মঈনুদ্দিন মঈনুল ও হানিফ উদ্দিনসহ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইদহ অফিস জানিয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বাসভবনে অবরুদ্ধ করে রাখা ও সুপ্রীম কোর্টে আওয়ামী লীগের তাণ্ডবের প্রতিবাদে ঝিনাইদহে কালো পতাকা মিছিল ও সমাবেশ করেছে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে আদালত প্রাঙ্গণ থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন আইনজীবীরা। আদালত চত্বর প্রদিক্ষণ করে জেলা আইনজীবী সমিতির সামনে সমাবেশ করেন তারা। সমাবেশে অ্যাড. এমএস মশিউর রহমান, এমএ মজিদ, দবির হোসেন, আবু তালেব, আলমগীর হোসেন আলম, শামসুজ্জামান লাকী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সমাবেশে বক্তারা সুপ্রীম কোর্টে আওয়ামী তাণ্ডবের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন ও দোষীদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর দাবি জানান। এছাড়া ৫ জানুয়ারির নির্বাচন স্থগিত করে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানেরও দাবি জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *