চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার বণ্ডবিল আমবাগানে ঝুলন্ত লাশ : অজ্ঞাত পরিচয়ের যুবতী হত্যা

আলমডাঙ্গা ব্যরো: চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার বণ্ডবিলগ্রাম সংলগ্ন আমবাগানে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবতীকে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে স্থানীয়রা আমগাছের ডালে নিচু করে শাড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখা লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালমর্গে নেয়। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পরিচয় মেলেনি। আজ দুপুরের মধ্যে পরিচয় না মিললে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে দাফন করা হবে।

নিহত যুবতীর পরনে রয়েছে কমলা রঙের শাড়ি। হালকা পাতলা গড়ন। গায়ের রং উজ্জ্বল শ্যামলা। বয়স আনুমানিক ১৮ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। উচ্চতা ৪ ফুট ১০ ইঞ্চি। যুবতীকে অন্য কোথাও থেকে এনে নির্যাতনের পর হত্যা করে লাশ গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হতে পারে। লাশ উদ্ধারের সময় আলামত দেখে পুলিশ এবং স্থানীয় জনগণ এরকমই সন্দেহ প্রকাশ করেছে।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা পৌর এলাকার বণ্ডবিল গ্রামের খেদ আলীর আমবাগানে অজ্ঞাত যুবতীর গলায় ফাঁস লাগানো লাশ দেখতে পেয়ে গ্রামবাসী থানা পুলিশকে খবর দেয়। সকালেই থানা পুলিশ বণ্ডবিল  বাজার ছেড়ে ফরিদপুরের দিকে একটু গিয়েই অনেক লোকের জটলা দেখতে পায়।  থানা পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রণয়নের পর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালমর্গে নেয়।        স্থানীয়রা বলেছে, লাশ আমগাছের মাত্র ৩ ফিট উঁচুতে  ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এ দেখে নিশ্চিত যে যুবতী আত্মহত্যা করেনি। পুলিশও প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে অজ্ঞাত পরিচয়ের এ যুবতীকে হত্যার পর লাশ গাছের ডালে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্ত শুরু হয়েছে। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হত্যার নেপথ্য উন্মোচন করতে পারেনি। ধরাও পড়েনি কেউ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *