চুয়াডাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ত্রিবার্ষিক নির্বাচন জমে উঠেছে

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ত্রিবার্ষিক নির্বাচন-২০১৪ জমে উঠেছে। এবারের নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভোটার ভোট প্রদানের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আগামী ৪ জুন বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত জেলার চারটি কেন্দ্রে একযোগে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গায় মোট ভোটার সংখ্যা এক হাজার ১৭১ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভোটার চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় ৪২৭ জন, আলমডাঙ্গা উপজেলায় ৩৬৬ জন, দামুড়হুদা উপজেলায় ২৭১ জন ও সবচেয়ে কম জীবননগর উপজেলায় ১০৭ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার মাঝেরপাড়ার মৌছুফা বেগম ও দামুড়হুদা উপজেলার ঈশ্বরচন্দ্রপুরের সুরমা বিবি ও দর্শনার রাশিদুন নাহার বেগম নামে তিনজন নারী ভোটার রয়েছেন। তবেআলমডাঙ্গা ও জীবননগর উপজেলায় কোনো নারী ভোটার নেই।

এবারের নির্বাচনে বেশকিছু নতুন ভোটার প্রথমবারের মতো ভোট প্রদান করবেন। এর মধ্যে রাজনৈতিক দলের নেতা, ব্যবসায়ী নেতা ও আইনজীবী রয়েছেন। উল্লেখযোগ্যদের মধ্যে রয়েছেন, জেলা জাসদের সভাপতি (রব) অ্যাড. সেলিম উদ্দিন খান, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক (রব) মো. তৌহিদ হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা এবিএম জহুরুল ইসলাম, সোহরাব উদ্দিন, ব্যবসায়ী সাইফুল হাসান জোয়ার্দ্দার টোকন, আলমডাঙ্গার পাঁচকমলাপুর গ্রামের রবিউল হক, গড়চাপড়া গ্রামের ডা. মোল্লা মবিরুল হোসেন ও পাইকপাড়ার নজরুল ইসলাম।                 বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল নির্বাচনে চারটি প্যানেল, জেলা কমান্ড কাউন্সিল দুটি প্যানেল ও চারটি উপজেলা কমান্ড কাউন্সিলের আটটি প্যানেলে ভোটযুদ্ধে অংশ নিচ্ছে। একজন ভোটার মোট ৬৯টি ভোটপ্রদান করতে পারবেন। এর মধ্যে কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলে ৪১টি, জেলা কমান্ড কাউন্সিলে ১৭টি ও উপজেলা কমান্ড কাউন্সিলে ১১টি ভোট দিতে পারবেন।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলে চারটি প্যানেল প্রতিবন্ধিতা করছে। মেজর জেনারেল (অব.) হেলাল উদ্দিনের প্যানেল টেলিভিশন মার্কা প্রতীক, অধ্যক্ষ (অব.) আব্দুল আহাদ চৌধুরীর প্যানেল দোয়াত-কলম মার্কা প্রতীক, মেজর (অব.) ওয়াকার প্যানেল সিংহ মার্কা প্রতীক ও মেজর (অব.) জিয়াউদ্দিন প্যানেল উড়োজাহাজ প্রতীকে ভোটযুদ্ধে লড়ছেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা কমান্ড কাউন্সিল নুরুল ইসলাম মালিকের প্যানেল পদ্মফুল ও আবু হোসেনের প্যানেল মোরগ মার্কা প্রতীকে লড়ছেন। সদর উপজেলা কমান্ড কাউন্সিলে আশু বাঙালি প্যানেল রজনীগন্ধা ও হাফিজুর রহমান প্যানেল হাতিমার্কায় ভোটযুদ্ধে লড়ছেন। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে চুয়াডাঙ্গা সদরে ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, দামুড়হুদা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও জীবননগর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল আমিন জানান,‘শান্তিপূর্ণ পরিবেশ ও কঠোর নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে ভোট গ্রহণ ও গণনা করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *