চুয়াডাঙ্গায় জীবাণুনাশক স্প্রের পাশাপাশি মশা নিধনে ওষুধ স্প্রে

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেই চুয়াডাঙ্গাতে বেড়েছে মশার উপদ্রব। একইসাথে বাড়ছে ডেঙ্গুর ঝুঁকি। এজন্য শুক্রবার বিকেল থেকে চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন এলাকায় মশা নিধনে ফগার মেশিনে ওষুধ স্প্রে শুরু করেছেন পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু। জানা গেছে, করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকেই রাতদিন পৌর এলাকায় ছুটে বেড়াচ্ছেন পৌর মেয়র। কখনও চাউলের বস্তা নিয়ে বাড়ি-বাড়ি ছুটছেন, কখনও নিজে গাড়ি চালিয়ে জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটাচ্ছেন আবারও বাইসাইকেল চালিয়ে জনসাধারণের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করছেন। এরই মাঝে সামনে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব দেখা দিতে পারে সেই কথা মাথায় রেখে তা প্রতিরোধে শুক্রবার পৌর এলাকায় মশা নিধনে ফগার মেশিনে ওষুধ স্প্রে কার্যক্রম শুরু করেন তিনি। এ সময় পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু বলেন, ‘সারাবিশ্বে এখন মহামারী আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। এরই মধ্যে সামনে আসছে ডেঙ্গুর সময়। আপনারা জানেন গতবছর সারাদেশ ডেঙ্গু প্রকোপ আকার ধারণ করেছিলো। এমনিতেই করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব চলছে তারপরও যদি ডেঙ্গু আসে তাহলে অবস্থা ভয়াবহ হবে। সেটা সামলানো আমাদের জন্য কঠিন হয়ে পরবে। সেই কথা চিন্তা করে এবার আগে থেকেই মশা নিধনে স্প্রে শুরু করা হলো। একইসাথে পৌরবাসীর কাছে বিনীত অনুরোধ আপনারা আপনাদের বাড়ির উঠানসহ আশপাশ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখবেন। তাহলে আল্লাহতালা আমাদের করোনা ভাইরাস ও ডেঙ্গু থেকে রক্ষা করবেন ইনশাআল্লাহ।’ এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ ইয়াহ্ ইয়া খান, জেলা দোকান মালিক সমিতির প্রচার সম্পাদক মাফিজুর রহমান মাফিসহ সশস্ত্রবাহিনীর একটি দল।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *