চুয়াডাঙ্গার হকপাড়া ও মাছের আড়তপট্টিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত

 

 

মিটার টেম্পারিং করে বিদ্যুত চুরি : দুজনের ৩০ হাজার টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার: গতকালও চুয়াডাঙ্গায় বিদ্যুত চুরিরোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। চুয়াডাঙ্গার হকপাড়া ও মাছপট্টি এলাকার দুজনকে মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বৈদ্যুতিক মিটার টেম্পারিং করার দায়ে একজনকে ২০ হাজার ও একজনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ছাড়াও রাস্তার পাশে ট্যাঙ্ক খুলে দীর্ঘদিন ধরে তা উন্মুক্ত রাখার দায়ে দৌলাতদিয়াড় বিএডিসি গোডাউনপাড়ার একজনকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা বিদ্যুত বিভাগের সহযোগিতায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরকার অসীম কুমার ও ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা খানমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। চুয়াডাঙ্গা হকপাড়ার আব্দুর রবের ছেলে মোতাহার আলীর বাড়ির মিটার টেম্পাং করে বিদ্যুত চুরির দায়ে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেন। জরিমানার টাকা সাথে সাথে পরিশোধ করায় তাকে আর কারাভোগ করতে হয়নি। একইভাবে চুয়াডাঙ্গা মাছের আড়তপট্টির পারভেজ মৎস্য আড়তের বরফ কলের বৈদুতিক মিটার টেম্পারিং করায় তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মালিকের ভাই মুরাদ আলী জরিমানার টাকা পরিশোধ করেন। ম্যাজিস্ট্রেট সরকার অসীম কুমার এ দণ্ডাদেশ দেন। এছাড়া চুয়াডাঙ্গা দৌলাতদিয়াড় বিএডিসি গোডাউনপাড়ায় রাস্তার পাশে ট্যাঙ্ক করে দীর্ঘ দিন উন্মুক্তভাবে ফেলে রাখায় মালিক আসমানখালীর আনোয়ার হোসেনকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা খানম এ অর্থদণ্ডাদেশ দেন।

বিদ্যুত বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী সুবক্তগণীসহ সদর থানার একদল পুলিশ ভ্রাম্যমাণ আদালতের সহযোগিতা করে। গতপরশু রোববার বিকেলেও বিদ্যুত বিভাগের সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.