চুয়াডাঙ্গার দোস্তবাজারে তিন যুবককে গণধোলাই

 

বেগমপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা সদরের দোস্তবাজারে বেল্টু, মিনারুল ও দাউদ নামের উশৃঙ্খল তিন যুবক জনরোষে পড়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছে। পুলিশ এসে তাদেরকে উদ্ধার করে। ওই তিন যুবক নিজেদের অপরাধ ঢাকতে থানায় অভিযোগ করেছে বলে জানা গেছে।

অভিযোগে জানা যায়, গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদরের শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়নের গাইদঘাট গ্রামের মোকতার হোসেনের ছেলে বেল্টু মিয়া (৩৭), ইসমাইল হোসেনের ছেলে মিনারুল ইসলাম (৩৮) ও সরোজগঞ্জ বাজারের সিরাজের ছেলে দাউদ হোসেন পূর্বশত্রুতার জের ধরে দোস্ত বাজারের আলম হোসেন মল্লিকের ছেলে মুদিদোকানদার মুছা হক মল্লিকের গালমন্দ করতে থাকে। এক পর্যায়ে ওই তিন যুবক মুছাকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিলে বাজারের লোকজনের রোষানলে পড়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়। খবর পেয়ে হিজলগাড়ি ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এএসআই মুহিতুর রহমান এসে তাদেরকে উদ্ধার করেন। এদিকে এ ঘটনা ভিন্নখাতে নিতে এবং নিজেদের দোষ ঢাকতে ওই তিন যুবক চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় মিথ্যা অভিযোগ করেছে বলে বাজার কমিটি জানিয়েছে। এ বিষয়ে বাজার কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও এএসআই মুহিতুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, রাতেই বিষয়টি মীমাংসা করে ওই তিন যুবক বাড়ি চলে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *