চুয়াডাঙ্গার দু যুবক মেহেরপুরে ছিনতাইকারীদের কবলে : এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মোটরসাইকেল ছিনতাই

 

 

মেহেরপুর অফিস:চুয়াডাঙ্গার দুজনকে মেহেরপুরে কুপিয়ে তাদের কাছে থাকা মোটরসাইকেল ও মোবাইলফোন ছিনিয়ে নিয়েছে একদল দুষ্কৃতী। গতরাত ৯টার দিকে মেহেরপুর ব্র্যাক অফিসের অদূরে তেলপাম্পের নিকট এ ঘটনা ঘটে। আহত দুজন কুদরত হোসেন ও ডেভিড হোসেনকে প্রথমে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে দুজনকেই চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে ধারালো অস্ত্রের কোপে আহত দুজনের মধ্যে কুদরত হোসেন (২৪) দৌলাতদিয়াড়ের মকবুল হোসেনের ছেলে। ডেভিড হোসেন (৩০) জেলা ছাত্রলীগের সদস্য। সে চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের জোয়ার্দ্দারপাড়ার শফিউর রহমান পিটুর ছেলে। ডেভিডের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার পিঠ, পেট, মাথা ও হাত ধারালো অস্ত্রের কোপে ক্ষতবিক্ষত হয়েছে। ধারালো অস্ত্রের কোপের পাশাপাশি লাঠিপেটারও দাগ রয়েছে। কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখমের দাগ দেখে অনেকেই মন্তব্য করতে গিয়ে বলেছে, শুধুই কি ছিনতাই নাকি অন্য কিছু? এদের কাছে থাকা পালসার মোটরসাইকেল ও মোবাইলফোন ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা। এ ছাড়াও কাছে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকাও ছিনতাই হয়েছে বলে ডেভিড এবং কুদরত জানিয়েছে।

কুদরত ও ডেভিড বলেছে, ব্যবসার টাকা আদায়ের জন্য পালসার মোটরসাইকেলযোগে দুজন মেহেরপুরে যাই। প্যাকেট বিক্রির পাওনা টাকা আদায় করে আনুমানিক রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফিরছিলাম। চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের মেহেরপুর ব্র্যাক অফিসের অদূরবর্তী ফিলিং স্টেশনের নিকট পৌঁছুলে ১০/১৫ জনের একদল মুখোশধারী ছিনতাইকারী গতিরোধ করে। সড়কে গাছ ফেলে গতিরোধ করে মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেয়। কাছে থাকা টাকা ছিনিয়ে নিতে গেলে ডেভিড ধস্তাধস্তি শুরু করলে তাকে এলোপাতাড়ি কোপায় ও মারপিট করে। কুদরতকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় ও দু হাত এবং দু পায়ে কুপিয়ে জখম করে। ছিনতাইকারীরা সরে পড়লে পুলিশ আসে। পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে মেহেরপুর হাসপাতালে নেয়। চিকিৎসার এক পর্যায়ে চিকিৎসকেরা চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। সে মতে রাতেই মেহেরপুর হাসপাতাল থেকে মাইক্রোবাসযোগে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়।

আহত দুজন ছাত্রলীগের প্রাক্তন নেতা। খবর পেয়ে তাদের চিকিৎসার খোঁজখবর নিতে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে যান মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফুয়ান আহমেদ রূপক ও জেলা যুবলীগের সভাপতি সাজ্জাদুল আনাম। চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফ হোসেন দুদু বলেছেন, ছাত্রলীগের দুজন মেহেরপুরে তাদের কাজ শেষে ফেরার পথে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়েছে। মোটরসাইকেল, নগদ টাকা ও মোবাইলফোন ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *