চুয়াডাঙ্গার ঘোড়ামারা ব্রিজের অদূরে মাইক্রোবাস-আলমসাধু সংঘর্ষ গরুব্যবসায়ী মজনু নিহত : আহত-৩

স্টাফ রিপোর্টার: মাইক্রোবাস ও আলমসাধুর মুখোমুখি সংঘর্ষে গরুব্যবসায়ী কুষ্টিয়ার মজনু রহমান নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন মহির উদ্দিন, হামিদুল ইসলাম ও আলমসাধু চালক সাহেব আলী (২২)। তাদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল ৭টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-আলমডাঙ্গা সড়কের ঘোড়ামারা ব্রিজের অদূরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত হামিদুল ইসলাম জানান, কুষ্টিয়া ইবির বিত্তিপাড়া থেকে ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ৩ গরুব্যবসায়ীসহ ৪ জন চুয়াডাঙ্গার জীবননগর হরিনারায়ণপুরের উদ্দেশে রওনা দেন। সকাল ৭টার দিকে আলমডাঙ্গা-চুয়াডাঙ্গা সড়কের ঘোড়ামারা ব্রিজের অদূরে পৌঁছুলে সামনে থেকে আসা একটি মাইক্রোবাস আলমসাধুকে ধাক্কা মারে। এ সময় চালক সাহেব আলী নিয়ন্ত্রণ হারালে আলমসাধু উল্টে তারা আহত হন। পথচারীরা আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক মজনু রহমানকে (৪২)  মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বিত্তিপাড়ার মৃত মোবারক হোসেনের ছেলে মহির উদ্দিন (৩৮), গোলাপ মণ্ডলের ছেলে হামিদুল ইসলামসহ (৪০) কয়েকজন গরুব্যবসায়ী মাঝে মধ্যে উজানগ্রামের আলফাজ আলীর ছেলে সাহেব আলীর আলমসাধুযোগে জীবননগরের বিভিন্ন সীমান্তে ভারতীয় গরু আনা-নেয়া করেন। গতকাল তাদের সাথে প্রথমবারে মতো যোগ দেন একই গ্রামের মৃত চতুর আলীর ছেলে মজনু রহমান। তিনি প্রথম দিনেই লাশ হয়ে ফিরলেন বাড়িতে। মজনু রহমান এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক ছিলেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *