চুয়াডাঙ্গার গড়াইটুপি গ্রামে মুখোশধারীদের তাণ্ডব : আ.লীগ নেতা হায়দারকে মারপিট

বেগমপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার তিতুদহ গড়াইটুপি গ্রামে আ.লীগ নেতার বাড়িতে তাণ্ডব চালিয়েছে মুখোশধারী সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা। সন্ধ্যারাতে বাড়ির সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গৃহকর্তা হায়দার আলীকে বেধড়কভাবে পিটিয়েছে। এ সময় গৃহকর্তার নিকট ১৫ লাখ টাকা দাবি করে। এ টাকা আগামী ৭ দিনের মধ্যে দেয়ার জন্য হুমকি দেয় মুখোশধারীরা। সন্ধ্যারাতে এ ঘটনায় গোটা এলাকার মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের গড়াইটুপি বাজারপাড়ার হারান ধনীর ছেলে ৮ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি হায়দার আলী জানান, গতপরশু সোমবার রাত ৯টার দিকে ৮/১০ জনের একদল মুখোশধারী সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা আমার বাড়িতে প্রবেশ করে। এ সময় তারা আমার নাম ধরে ডাকে। আমি ঘরের বাইরে এলে তারা কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই বেদম মারপিট করে। স্থানীয় লোকজন ছুটে এলেও সাহস করে কেউ বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করেনি। এ সময় তারা বলে গ্রামের মল্লিক তরফদারের ছেলে বিল্লাল হোসেনের বিভিন্ন মামলা মোকদ্দমায় অনেক টাকা খরচ হয়ে গেছে। এর ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১৫ লাখ টাকা দিতে হবে তোকে। এ টাকা আগামী ৭ দিনের মধ্যে তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদে জমা দেয়ার জন্য হুমকি দেয়। এদিকে খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছান তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশের সদস্যরা। পুলিশি উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে দুর্বৃত্তরা।

স্থানীয়রা জানায়, গ্রামের বিল্লাল ও সোহরাফ চাচাতো ভাই। এদের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। মামলা মোকদ্দমা চালাতে গিয়ে স্থানীয় আ.লীগের কিছু নেতার দালালির কারণে বিল্লালের আর্থিক ক্ষতি হয়। তাই হায়দার সোহরাফের পক্ষ নেয়ার জের ধরে দুর্বৃত্তরা হায়দারকে মারপিট করে। এ বিষয়ে তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই ওয়ালিয়ার রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগে দুর্বৃত্তরা চলে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *