চুয়াডাঙ্গার গণপূর্ত বিভাগ ঘিরে দুর্নীতির মহোৎসব

 

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নিশাত রঞ্জন পাল, উপবিভাগীয় প্রকৌশলী অমিত কুমার দেব ও হিসাবরক্ষক এসএম আয়ুব হোসেনের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ পাওয়া গেছে। কয়েকজন ঠিকাদারের সাথে যোগসাজোশ করে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে দেড়কোটি টাকার মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজের নামে লুটপাট ও সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদের স্বাক্ষর জাল করে ৪০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এসব বিষয়ে খোদ ওই প্রতিষ্ঠানের উচ্চমান সহকারী (প্রধান সহকারী) এলাহী বকশ প্রধান প্রকৌশলীর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, বাসভবন ও সার্কিট হাউজ, জেলা জজের কার্যালয় ও বাসভবন, পুলিশ সুপারের কার্যালয়,বাসভবন ও পুলিশ লাইন, জেলা কারাগার, ফায়ার সার্ভিস, সিভিল সার্জনের কার্যালয়, বাসভবন ও নার্সিং ট্রেনিং ইনস্টিটিউট, দামুড়হুদা ও জীবননগর উপজেলা কোর্ট এবং আবহাওয়া অফিসের মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণের নামে এক কোটি ২৫ লাখ টাকার ওপরে কাজ বরাদ্দ করা হলেও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা পুরোপুরি জানেননা। আংশিক কাজ করে বা আদৌ কাজ না করেই এসব টাকা ঠিকাদারদের সাথে যোগসাজোশ করে গণপূর্তের কর্মকর্তারা তুলে ভাগাভাগি করেছেন। একই সাথে গণপূর্ত বিভাগের নামে ২৪ লাখ ১৬ হাজার টাকা ব্যয়ে ৩৩টি প্রকল্প নেয়া হলেও বেশিরভাগ কাজই না করে টাকা ভাগাভাগি করা হয়েছে। বিশেষ করে নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ের জন্য দেড়লাখ টাকা কাজ না করে আত্মসাতের ঘটনা জানাজানি হলে গতকাল বুধবার থেকে তড়িঘড়ি করে কাজ শুরু করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, কাজ ছাড়ায় বিল উত্তোলনের জন্য উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ঠিকাদারদের সাথে নিয়ে প্রত্যায়নপত্র দিতে চাপ সৃষ্টি করে আসছেন। কোন কোন প্রতিষ্ঠানের কী কাজের জন্য কতো টাকার প্রকল্প নেয়া হয়েছে দৈনিক মাথাভাঙ্গার অনুসন্ধানে তা বেরিয়ে এসেছে।

কাজগুলো হচ্ছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সার্ভার রুমের জানালায় থাই গ্লাস স্থাপন একলাখ টাকা, আইসিটি কক্ষে টাইলস স্থাপনের অবশিষ্ট কাজ ৮৭ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নিচতলায় গ্রিল স্থাপন তিনলাখ টাকা, তৃতীয় তলা অংশের জলছাদ চারলাখ ৫০ হাজার টাকা, পুরাতন এসডিও ভবনের নিচতলার বারান্দার গ্রিল ও কলাপসিবল গেট স্থাপন এর অবশিষ্ট কাজ একলাখ টাকা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের পশ্চিমপার্শের গাড়ির বারান্দাসহ রাস্তা উঁচুকরণ কাজ তিনলাখ টাকা, বিআরটিএ কার্যালয়ে রেকর্ডরুম নির্মাণসহ মেরামত একলাখ টাকা, এসডিও কোর্টের দোতলায় অবশিষ্ট বারান্দা গ্রিলস্থাপনসহ মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নিচতলা জেলা হিসাবরক্ষণ অফিস রূপে রূপান্তর ও দোতলায় রেকর্ডরুমের সংস্কার কাজ দুলাখ ৫০ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসকের বাসভবনে আরসিসি মেন গেট নির্মাণসহ টাইলস স্থাপনের বাকি কাজ দুলাখ ৭৫ হাজার টাকা, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের চাহিদা মোতাবেক বিভিন্ন জরুরি কাজ সম্পাদনের জন্য বরাদ্দ পাঁচ লাখ টাকা, সার্কিট হাউজের মূল ভবনসহ রান্নাঘর মেরামত কাজ তিনলাখ টাকা, সার্কিট হাউজের গ্যারেজ কাম ড্রাইভার শেড ও সীমানা পাঁচিল মেরামত কাজ একলাখ টাকা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে অবস্থিত ২৫০ কেভিএ বৈদ্যুতিক সাব স্টেশনের আন্ডারগ্রাউন্ড এইচটি লাইন জ্বলে যাওয়ায় এর পরিবর্তে এইচটি ওভারহেড লাইন নির্মাণসহ মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসকের সরকারি বাসভবনের গার্ডেন,গেটলাইটসহ বাসভবনের আভ্যন্তরীণ মেরামত কাজ ৯৫ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের তৃতীয় তলার পশ্চিম ব্লকের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ একলাখ টাকা, বিআরটিএ কার্যালয়ের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, সার্কিট হাউজের ভিআইপি ১ ও ২ কক্ষের জন্য দেড় টন ক্ষমতা সম্পন্ন দুটি উইন্ডো টাইপ এসি সরবরাহ ও স্থাপন দুলাখ ৮০ হাজার টাকা, সার্কিট হাউজের ১০ কেভিএ ডিজেল জেনারেটর মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, সার্কিট হাইজের ডাইনিং রুম ও রান্নাঘরের বৈদ্যুতিক মেরামত, গেট ও স্ট্রিটলাইট মেরামত কাজ একলাখ টাকা, সার্কিট হাউজের ডিজিটাল কলিংবেল পুনঃসংযোজন ৫০ হাজার টাকা, জেলা হিসাবরক্ষণ কার্যালয়ের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৯০ হাজার টাকা,জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সাবস্টেশনের বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৮০ হাজার টাকা, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তার অফিস সংলগ্ন বাথরুমে টাইলসস্থাপনসহ পানি সরবরাহ কাজ ১৯ হাজার টাকা, কালেক্টরেট ভবনের দক্ষিণ-পশ্চিম ও পাশের সীমানা পাঁচিল মেরামত কাজ ৮৯ হাজার, সার্কিট হাউজের গার্ডেন লাইট,স্ট্রিটলাইট ও গেট লাইট মেরামত ৫৭ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সাবস্টেশন নির্মাণ কাজ ছয় হাজার টাকা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমের জানালায় থাইগ্লাস স্থাপন কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, হিসাবরক্ষণ অফিসের ট্রেজারি অফিসের গ্রিল স্থাপন কাজ একলাখ ৩৫ হাজার টাকা, এনডিসির অফিস কক্ষে টাইলস স্থাপন কাজ ১৫ হাজার টাকা ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের দক্ষিণ পাশের গাড়ির গ্যারেজ থেকে এসডিও কোর্ট পর্যন্ত রাস্তা উঁচুকরণ কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা।

জেলা জজের বাসভবনের ছাদ ও ওভারহেড পানির ট্যাংক মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, জেলা জজ আদালত ভবনের স্যানিটারি ও পয়ঃপ্রণালী মেরামত অবশিষ্টকাজ ৫০ হাজার টাকা, জেলা জজের বাসভবনের নিচতলায় মেঝেতে টাইলস স্থাপন কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, জেলা জজের বাসভবনে নিচতলায় দরজা ও জানালা সমূহে মশা নিরোধক নেট সংযোজন একলাখ টাকা, জেলা জজ আদালত ভবনের নিচতলায় পশ্চিমপাশের বারান্দায় একটি অফিসকক্ষ ব্যবহার উপযোগীকরণ ও উত্তরপাশের বারান্দায় একটি অফিসকক্ষ সম্প্রসারণ কাজসহ অন্যান্য মেরামত একলাখ টাকা, জেলা জজ আদালতের নামাজঘরের টাইলস স্থাপনের অবশিষ্ট কাজ ৭৫ হাজার টাকা, জেলা জজের খাসকামরা ও বাথরুম টাইলসকরণ মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, জেলা জজের বাসভবনের গার্ডশেড,ড্রাইভার শেড’র বিদ্যুত মেরামত ও ১ এইচপি পাম্প মোটর সেট সরবরাহ ৮০ হাজার টাকা, জেলা জজের কম্পাউন্ড লাইট ও বিভিন্ন এজলাসের ফ্যান মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত ভবনের বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ একলাখ টাকা, জেলা জজ আদালতের নিচতলার ও ১ম তলার বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ একলাখ টাকা, জেলা জজের বাসভবনে আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৫৫ হাজার টাকা, জেলা জজের বাসভবনের গার্ডেনের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৮০ হাজার টাকা এবং জেলা জজের চেম্বারে এসির ডবল বৈদ্যুতিক লাইন স্থাপন ও এজলাসের বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত কাজ ১৮হাজার টাকা।

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপারের বাসভবন মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ সুপারের অফিস ভবনের বিশেষ মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের রান্নাঘরের রঙকরণ ও মেরামতের অবশিষ্ট কাজ ৯৭ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের ৩০০ জন ব্যারাক ভবনের স্যানিটারি ও পানি সরবরাহ ব্যবস্থার মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ লাইনের রিজার্ভ অফিসের মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ লাইনের ম্যাগজিন ভবনের মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের ৬০০ বর্গফুট কোয়ার্টার নং ২’র মেরামত কাজ দুলাখ টাকা, পুলিশ লাইনের ৮০০ বর্গফুট কোয়ার্টার-২’র স্যানিটারি ও পানি সরবরাহ ব্যবস্থার মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ লাইনের ৮০০ বর্গফুট কোয়ার্টার-২’র মেরামত কাজ দুলাখ টাকা, পুলিশ লাইনের ৮০০ বর্গফুট কোয়ার্টার-১’র মেরামত কাজ দুলাখ টাকা, পুলিশ সুপারের অফিস ভবনের স্যানিটারি ও পানি সরবরাহ ব্যবস্থার মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের আভ্যন্তরীণ স্যানিটারি ও পানি সরবরাহ ব্যবস্থার মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, পুলিশ সুপারের কার্যালয় ও বাসভবনের ওভারহেড/কম্পাউন্ড ও গার্ডেন লাইট মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ লাইনে ৩০০ পুলিশ ব্যারাকের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ লাইন অস্ত্রাগারের এসি মেরামতসহ বিভিন্ন ভবনের বৈদ্যুতিক পাখা মেরামত কাজ একলাখ টাকা, পুলিশ লাইনের ডাইনিং রুম ও রান্নাঘরের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের ৮০০ বর্গফুট কোয়ার্টার-২’র আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ একলাখ ৩০ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের ৮০০ বর্গফুট কোয়ার্টার-৩’র মেরামত কাজ ৮৯ হাজার টাকা, পুলিশ লাইনের অভ্যন্তরে স্যালুটিং রেজ নির্মাণকাজ ৩২ হাজার টাকা এবং পুলিশ লাইনের কনস্টবলদের গোসল করার জন্য একটি পানির হাউজ নির্মাণের অবশিষ্ট কাজ ২০ হাজার টাকা।

চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ভবনের স্যানিটারি ও পানি সরবরাহ ব্যবস্থার মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, জীবননগর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের মূলভবন মেরামত ৫০ হাজার টাকা এবং আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা।

চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগার নদীর ভাঙন রক্ষার্থে অবজারভেশন টাওয়ার থেকে ড্রেন পর্যন্ত প্যালাসাইডিং কাজ ছয়লাখ টাকা, একই স্থানে নদীর ভাঙনে আউটলেট ড্রেনের ভেঙে যাওয়া অংশ পুনর্নির্মাণসহ স্লাব নির্মাণ তিনলাখ টাকা, নদীর ভাঙন থেকে রক্ষার্থে মাটি ভরাট দু লাখ ৫০ হাজার টাকা, কারাগারের শ্রেণিপ্রাপ্ত বন্দি ব্যারাক ভবনের জলছাদ সিভিল ও স্যানিটারির মেরামত কাজ দুলাখ টাকা, কারাগারের স্ট্রিটলাইট ও মেটাল হেডলাইট মেরামত কাজ একলাখ টাকা, কারাগারের পোলসংযুক্ত ভবনের সার্ভিস লাইনে ব্যবহৃত জিআই পাইপ পরিবর্তন করে পিভিসি পাইপ স্থাপন কাজ ৫০ হাজার টাকা, কারাগারের ২০ কেভিএ বৈদ্যুতিক জেনারেটর মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, কারাগারের ওয়ার্ডাস ব্যারাকের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত ও ফায়ার অ্যাস্টিংগুইসার মেরামত ও রিফিলিং কাজ একলাখ টাকা, বিভিন্ন বন্দি ব্যারাকের ফ্যান মেরামত ৫০ হাজার টাকা, জেল সুপারের সরকারি বাসভবনের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৩০ হাজার টাকা, কারাগারের স্যানিটারি ও পয়ঃপ্রণালী মেরামত ৫০ হাজার টাকা, কারাগারের রান্নাঘর মেরামত কাজ ৭৫ হাজার টাকা, বিচারাধীন বন্দি ব্যারাক যমুনার মেরামত ৫০ হাজার টাকা, বিচারাধীন বন্দি ব্যারাক পদ্মার মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, ১০০০ বর্গফুট কোয়ার্টারের জেল সুপারের বাসভবন মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা,কারাগারের ৮০০ বর্গফুট স্টাফ কোয়ার্টারের মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা এবং কারাগারের ৬০০ স্টাফ কোয়ার্টারের মেরামত কাজ ২৫ হাজার টাকা।

গণপূর্ত বিভাগের বিভাগীয় অফিস ভবনের নিচতলায় প্রবেশ স্থান থেকে উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ই/এম কক্ষ ও সিঁড়িসহ দোতলার নির্বাহী প্রকৌশলীর কক্ষ পর্যন্ত মেঝে টাইলস দুলাখ ৫০ হাজার টাকা, উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর (সিভিল) বাসভবনের পানি সরবরাহ ও পয়ঃপ্রণালী ব্যবস্থার মেরামত এবং প্রয়োজনীয় ফিটিংস-ফিক্সার ৫০ হাজার টাকা, একই ভবনের বাথরুম কাম টয়লেটে টাইলস স্থাপন ৫০ হাজার টাকা, নির্বাহী প্রকৌশলীর অফিস ভবনের সিভিল ও স্যানেটারি মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের নিচতলায় ও রান্নাঘরে টাইলস স্থাপনসহ মেরামত কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর বাসভবনে সীমানা পাঁচিল মেরামতের অবশিষ্ট কাজ ২৫ হাজার টাকা, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের গ্যারেজের মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর (সিভিল) অফিসভবনের সিভিল ও স্যানেটারির মেরামত কাজ একলাখ টাকা, গণপূর্ত বিভাগীয় চত্বরের প্রধান ফটক নির্মাণ কাজ একলাখ ৫০ হাজার টাকা, সরকারি গেজেটেড ডরমেটরি ভবনের সিভিল ও স্যানেটারির বিশেষ মেরামত কাজ ৭০ হাজার টাকা, গণপূর্ত বিভাগের আবাসিক কম্পাউন্ডের গেটসহ গেট সংলগ্ন সীমানা পাঁচিলের বিশেষ মেরামত কাজ একলাখ টাকা, একই কম্পাউন্ডে উপসহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) ১’র বাসভবন,রান্নাঘর ও সীমানা পাঁচিল মেরামত একলাখ টাকা, তৃতীয় শ্রেণির বাসভবন নং ৩ ‘ক’ হিসেবে মেরামত ৫০ হাজার টাকা, পুরাতন সেকশন অফিসের রান্নাঘরে মেরামত ৫০ হাজার টাকা, আবাসিক কম্পাউন্ডের ৪র্থ শ্রেণির বাসভবন ২’র মেরামত ৫০ হাজার টাকা, ৪র্থ শ্রেণির বাসভবন ৩ ও ৪’র মেরামত ৫০ হাজার টাকা, জেলা স্টাফ কোয়ার্টার এ টাইপ ভবনের সিভিল স্যানেটারিসহ পয়ঃপ্রণালী অংশের মেরামত ৫০ হাজার টাকা, জেলা স্টাফ কোয়ার্টার বি টাইপ ভবনের সিভিল স্যানেটারিসহ পয়ঃপ্রণালী অংশের মেরামত ৫০ হাজার টাকা, জেলা স্টাফ কোয়ার্টার এ ও বি টাইপ ভবনের সামনের অংশের সীমানা পাঁচিল পুনঃনির্মাণ ও গেট স্থাপন কাজ ৫০ হাজার টাকা, গণপূর্ত পরিদর্শন বাংলোয় দেড় টন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি স্পিলিট টাইপ এসি সরবরাহ ও স্থাপনসহ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ দুলাখ টাকা, উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর বাসভবন গার্ডেন ও গেটলাইটসহ আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, ই/এম শাখা অফিস পরিবর্তিত বাসা, ৩য় শ্রেণি ডরমেটরি ও ড্রাইভার গার্ড শেডের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, নিজস্ব কোয়ার্টার ১/ক,২/ক,২/খ’র আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, ই/এম উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর কার্যালয়ের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, গেজেটেড ডরমেটরি ভবনের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামতসহ জ্বলে যাওয়া ৩ এইচপি পাম্পমোটর সেট মেরামত একলাখ টাকা, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের গেটলাইট মেরামত ৩০ হাজার টাকা, উপসহকারী প্রকৌশলীর বাসভবনের গেটলাইট মেরামত ৩০ হাজার টাকা,উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর অফিসের ওভারহেড লাইন মেরামত কাজ ৮৫ হাজার টাকা,গেজেটেড স্টাফ কোয়ার্টারের পশ্চিম ও উত্তর পাশের সীমানা পাঁচিল মেরামতসহ উঁচুকরণ কাজ ৬৯ হাজার টাকা, নিজস্ব স্টাফ কোয়ার্টারের সীমানা পাঁচিল মেরামত কাজ ১৭ হাজার টাকা, গণপূর্ত বিভাগের ভেতরে অবস্থিত চতুর্থ শ্রেণির স্টাফ কোয়ার্টার ১ ও ২ এবং তৃতীয় শ্রেণির স্টাফ কোয়ার্টার ২/ক মেরামত ৬৫ হাজার টাকা।

সিভিল সার্জন অফিসের রঙকরণসহ মেরামত একলাখ টাকা, সিভিল সার্জনের বাসভবনের সীমানা পাঁচিল উঁচুকরণসহ মেরামত কাজ একলাখ টাকা, নার্সিং ইনস্টিটিউটের অফিস কাম হোস্টেল ৩য় ও ৪ র্থ তলার সিভিল মেরামত একলাখ টাকা, নার্সিং ইনস্টিটিউটের অফিস কাম হোস্টেল পানি সরবরাহ ও পয়ঃপ্রণালী ব্যবস্থার মেরামত কাজ ৫০হাজার টাকা, নার্সিং ইনস্টিটিউটের স্টাফ কোয়ার্টারের (৪ তলা ভবন) সিভিল মেরামত কাজ একলাখ টাকা, নার্সিং ইনস্টিটিউটের স্টাফ কোয়ার্টারের (৪ তলা ভবন) পানি সরবরাহ ও পয়ঃপ্রণালী ব্যবস্থার মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, সীমানা পাঁচিল মেরামত ৫০ হাজার টাকা, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত একলাখ টাকা, নার্সিং ট্রেনিং সেন্টারের ২য় ও ৩য় তলার আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক লাইন মেরামত একলাখ টাকা, নার্সিং ট্রেনিং সেন্টারের বৈদ্যুতিক পাখা মেরামত ৩০ হাজার টাকা এবং সিভিল সার্জনের বাসভবনের আভ্যন্তরীণ বৈদ্যুতিক মেরামত কাজ ৭০ হাজার টাকা।

চুয়াডাঙ্গার আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের সিভিল ও স্যানেটারি মেরামত ৫০ হাজার টাকা, চুয়াডাঙ্গা শিশু পরিবার (বালিকা) সুপারের অফিস ভবনের সিভিল ও স্যানেটারি মেরামত ৫০ হাজার টাকা।

জীবননগর আদালত ভবনের মেরামত কাজ ৫০ হাজার টাকা, দামুড়হুদা উপজেলা কোর্ট বিল্ডিং মেরামত কাজ ২৫ হাজার টাকা ও জীবননগর উপজেলা কোর্টভবন মেরামত ৩০ হাজার টাকা।

এছাড়া, বদলিজনিত হাইজেনিক ওয়াস,জেলা কোর অফিসারদের বাসভবনের জরুরি মেরামত একলাখ ৫০ হাজার টাকা, দৈনন্দিন কাজ,বদলিজনিত হাইজেনিক ওয়াস,জরুরিসেবা ক্রয়ের জন্য লোকবর বাবদ পারিশ্রমিক,পেটি পারচেঞ্জ ছয়লাখ টাকা এবং জাতীয় দিবস সমূহে সরকারি ভবনের আলোকসজ্জা,বদলিজনিত কারণে কোর অফিসারদের আবাসিক ভবনের হাইজেনিক ওয়াস (জেলা জজ ও জেলা প্রশাসকের বাস ভবন) দুলাখ টাকা।

চুয়াডাঙ্গা গণপূর্ত বিভাগ দেড়কোটি টাকা খরচে ১৪২টি প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি করলেও সূত্রমতে ৮৫ লাখ টাকার কাজের টেন্ডার করেছে এবং বাকি ৬৫ হাজার টাকার কোনো টেন্ডার কাগজ-কলমে দেখিয়ে টাকা আত্মসাত করেছে। তাছাড়া, যেসব কাজের টেন্ডার হয়েছে, তার সিংহভাগই কোনো কাজ হয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *